ওবায়দুল কাদেরের শয্যাপাশে স্বজনরা

ওবায়দুল কাদেরের শয্যাপাশে স্বজনরা

0

নিউজ ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম ১০ মার্চ : হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে সিঙ্গাপুর গিয়েছেন তার ছোট ভাই, ভাগনে, ভাতিজাসহ নির্বাচনী এলাকা কোম্পানীগঞ্জের কয়েকজন শুভানুধ্যায়ী।

ওবায়দুল কাদেরের ব্যক্তিগত সহকারী ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি নুরুল করিম জুয়েল জানান, শুক্রবার রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে হযরত শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সিঙ্গাপুর এয়ার লাইনসের একটি ফ্লাইটে দেশটির উদ্দেশে রওনা হন ওবায়দুল কাদেরের স্বজনরা। ভোররাতের দিকে তারা সিঙ্গাপুর পৌঁছান।

সিঙ্গাপুর পৌঁছে স্বজনরা মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসকদের কাছে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন।

ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জার সঙ্গে সিঙ্গাপুর গিয়েছেন ভাগনে কর্নেল ফখরুদ্দিন, ভাতিজা মির্জা মাসরুর কাদের তাসিক, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি নুরুল করিম জুয়েল, ব্যবসায়ী অরবিন্দ ভৌমিক ও আওয়ামী লীগ নেতা আইয়ুব আলী।

এ দিকে শনিবার ওবায়দুল কাদেরের অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

শ্বাসনালির নল খুলে দেয়ায় শনিবার সকালে চিকিৎসক এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলছেন তিনি।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপপ্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. আবু নাছের স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শনিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত রোববার সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে ওবায়দুল কাদের ঢাকার বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তি হলে এনজিওগ্রামে তার হৃৎপিণ্ডের রক্তনালিতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে।

এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে সোমবার বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার আম্বুলেন্সে তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়।

সেদিন রাতেই একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা শুরু করেন মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। মঙ্গলবার ওবায়দুল কাদেরের কিডনিতে কিছু জটিলতা এবং রক্তে সংক্রমণ ধরা পড়ে। সেগুলো নিয়ন্ত্রণে এলেই বাইপাস সার্জারি করার কথা ভাবছেন চিকিৎসকরা।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন