প্রতিদিন একটি ডিম বাড়াতে পারে মৃত্যুর ঝুঁকি

প্রতিদিন একটি ডিম বাড়াতে পারে মৃত্যুর ঝুঁকি

0

লাইফস্টাইল ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম ১৯ মার্চ : আমাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ডিম থাকিবেই। ছোট-বড় সবাই ডিম খেতে খুব পছন্দ করে।তবে ডিম খেতে অনেকে পছন্দ করলেও ডিম খাওয়া কি সবার জন্য ভালো।

হৃদযন্ত্রের জন্য ডিম উপকারী নাকি অপকারী এ নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই।ডিম নিয়ে জেএএমএ জার্নালে প্রকাশিত একটি নতুন সমীক্ষায় ফলাফল নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।

সমীক্ষায় বলা হয়েছে, প্রতিদিন একটির বেশি এমন কি অর্ধেক ডিম খেলেও কার্ডিওভাসকুলার রোগের মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে। সমীক্ষায় আরো বলা হয়েছে, কার্ডিওভাসকুলার রোগের মৃত্যুর আশঙ্কা শুধু নয়, মৃত্যুর সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। ৩০ হাজার প্রাপ্তবয়স্কের উপরে সমীক্ষা চালিয়ে এই ফলাফল পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছে সমীক্ষাটি।

পরীক্ষায় দেখা গেছে, প্রত্যেকদিন অতিরিক্ত ৩০০ মিলিগ্রাম কোলেস্টেরলও কিন্তু কার্ডিওভাসকুলার রোগের আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়। পাশাপাশি আয়ুও বেশ খানিকটা কমিয়ে দিতে পারে।

গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতিদিনের ডায়েটে ও ডিমের মধ্যে দিয়ে শরীরে খাদ্যজ কোলেস্টেরল প্রবেশ করে। তবে খাদ্যজ কোলেস্টেরল ও ডিম কার্ডিওভাসকুলার রোগদের কতটা প্রভাবিত করে সেটা নিয়ে কিন্তু এখনো বিতর্ক চলছে।

গবেষণায় আরো জানা গেছে, বেশিরভাগ মানুষই নিয়মিত ডিম খান।আর প্রতিদিনের এই খাদ্যভ্যাস থেকে ডিম খাওয়া নিয়ে বিতর্ক।প্রতিদিন বা সপ্তাহে কয়টি ডিম খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

এ বিষয়ে রয়টার্সের সঙ্গে এ সাক্ষাতকারে গবেষণার সহ-লেখক নুরিনা অ্যালেন বলেন,অতিরিক্ত খাদ্যজ কোলেস্টেরল গ্রহণের ফলে কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঘটনা ও মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ছে। ডিম খাওয়া বন্ধ করে দেয়াই মঙ্গল।

১৯৮৫ সালের ২৫ মার্চ থেকে শুরু করে ২০১৬ সালের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত তথ্যগুলো গবেষণায় ব্যবহৃত হয়েছে।তথ্যগুলো অনেকে মানুষের প্রতিদিনের খাদ্যাভাসের উপরে ভিত্তি করে সংগ্রহ করা হয়েছে।

এই সময়ের মধ্যে প্রায় ৫৪০০টি কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করা হয়েছে গবেষণায়।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন