পিটারসেন ভয় পেতেন সাকিব-রাজ্জাককে

পিটারসেন ভয় পেতেন সাকিব-রাজ্জাককে

0

ক্রীড়া ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : উপমহাদেশের বাইরের ব্যাটসম্যানদের স্পিনারদের বিরুদ্ধে আলাদা ভয় কাজ করে সব সময়। এজন্য উপমহাদেশে সফরে এলে ব্যাটসম্যানদের জন্য স্পিনে ফাঁদ পাতা হয়। সাম্প্রতিক সময়ে এ কাজগুলো বেশি করছে ভারত, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ।

মনে নেই, ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশ নাস্তানাবুদ করেছিল স্পিন আক্রমণেই। তবে বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণের এ দৃশ্য দীর্ঘদিনেরই। তাইতো ইংল্যান্ডের সাবেক ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেন প্রশংসায় ভাসালেন বাংলাদেশের স্পিনারদের। বিশেষ করে বাঁহাতি স্পিনার যেমন, আব্দুর রাজ্জাক, সাকিব আল হাসানকে প্রচণ্ড ভয় পেতেন তা বোঝা গেল তাঁর কণ্ঠে।

সম্প্রতি উপমহাদেশ সফরের অভিজ্ঞতা নিয়ে ক্রিকবাজকে সাক্ষাতকার দিয়েছেন পিটারসেন। সেখানে উঠে আসে বাংলাদেশের প্রসঙ্গও।

পিটারসেন কথার ঝাঁপি খুলে বলেন,‘বাংলাদেশ! ওখানে সফর করা ছিল খুব কঠিন। বিশেষ করে সেখানে ব্যাটিং করা। বাঁহাতি স্পিনের বিপক্ষে আমি ছিলাম নড়বড়ে। কিন্তু বাংলাদেশে প্রত্যেক বোলারই ছিল বাঁহাতি স্পিনার! বিমানে উঠে দেখি, সেখানকার পাইলটও বাঁহাতি স্পিনের চর্চা করছে। রাস্তায় মানুষ হাঁটছে সেখানেও বাঁহাতি স্পিনের চর্চা। আমার কাছে বাংলাদেশ মানেই বাঁহাতি স্পিন।’

বিশ্বের নামি দামী স্পিনারদের বিরুদ্ধে পিটারসেন মন খুলে রান করলেও বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণে তাঁর ব্যাট হাসেনি। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে মিলিয়ে ১৪ ইনিংসে ব্যাটিং করেছেন মারকুটে ব্যাটসম্যান। ১০ বার তাকে আউট করেছেন বোলাররা। ইংলিশ ক্রিকেটার প্রত্যেকবারই আউট হয়েছেন বাঁহাতি স্পিনে। টেস্টে ৪ ম্যাচে ৭ ইনিংসে ৩৪২ রান করেছেন। ওয়ানডেতে ৭ ম্যাচে রান মাত্র ৭৪।

২২ গজে তাকে সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বের অন্যতম সেরা এ অলরাউন্ডার পিটারসেনকে আউট করেছেন পাঁচবার। আব্দুর রাজ্জাক তাঁর উইকেট পেয়েছেন চারবার। এছাড়া প্রয়াত মাঞ্জারুল ইসলাম রানা একবার পিটারনেসকে আউট করেছেন।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন