এ বছর অনিশ্চিত এএফসি কাপ

এ বছর অনিশ্চিত এএফসি কাপ

0

ক্রীড়া ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের খেলা পিছিয়ে গেছে। এ বছর হবে কি না তা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। বৃহস্পতিবার এএফসি কাপের নকআউট পর্বের ড্র স্থগিত হয়ে গেছে। শঙ্কা দেখা দিয়েছে মাঠে খেলা গড়ানো নিয়ে। যদিও নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারলেন না বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ। তার কথায়, ‘আমরা আশঙ্কা করছি এএফসি কাপ পিছিয়ে যাওয়ার। যদিও এখনও বিষয়টি নিয়ে কিছু জানায়নি এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)।’

এএফসি কাপের বাছাইপর্বে খেলছে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। গত ১১ মার্চ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অভিষেক ম্যাচে মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টসকে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত করে তারা। বাকি পাঁচটি ম্যাচ অক্টোবর ও নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। করোনা সংক্রমণ রোধে একই ভেন্যুতে সব ম্যাচ আয়োজনের চিন্তা করে এএফসি। সে মোতাবেক তিন দেশের পাঁচ ক্লাবকে নিজেদের দেশেই হোম ভেন্যুর আবেদন করতে বলা হয়। কিন্তু ভারত ও বাংলাদেশ আবেদন না করায় আগ্রহী মালদ্বীপ পেয়ে যায় সেই সুযোগ। ২৩ অক্টোবর

ও ৪ নভেম্বর মাজিয়া স্পোর্টস, ২৬ ও ২৯ অক্টোবর চেন্নাই সিটি এফসি এবং ১ নভেম্বর টিসি স্পোর্টস ক্লাবের বিপক্ষে ই-গ্রুপের বাকি

পাঁচটি ম্যাচ খেলবে বসুন্ধরা কিংস। সে লক্ষ্যে ব্রাজিল থেকে রবিনহো এবং জোনাথন ফার্নান্দেজকে উড়িয়ে আনছে তারা।

কিন্তু অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে টুর্নামেন্ট নিয়ে। বুধবার মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল এএফসি কাপ নকআউট পর্বের ড্র। হঠাৎ স্থগিত ঘোষণা করা হয় সেই অনুষ্ঠান। এতে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে নির্দিষ্ট সময়ে (অক্টোবর-নভেম্বর) টুর্নামেন্টের বাছাইপর্ব নিয়ে। গুঞ্জন রয়েছে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের মতো পিছিয়ে যেতে পারে এএফসি কাপের বাছাইপর্বও। কারণ এশিয়ায়ও দাপিয়ে বেড়াচ্ছে করোনাভাইরাস। তাই বাছাইপর্বের খেলাগুলো পিছিয়ে যেতে পারে। আবু নাঈম সোহাগ বলেন, ‘এএফসিতে কী হচ্ছে আমরা এখানে বসে বলতে পারব না। দু’একদিন গেলে বোঝা যাবে, কী চায় এশিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা।’

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন