নিউ জিল্যান্ডে ক্রিকেট শুরু ১৯ অক্টোবর

নিউ জিল্যান্ডে ক্রিকেট শুরু ১৯ অক্টোবর

0

ক্রীড়া ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অভাবনীয় সাফল্য দেখিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। বলা চলে, পরিস্থিতি এখন তাদের নিয়ন্ত্রণে। এই অবস্থায় দেশে ক্রিকেট ফেরানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ১৯ অক্টোবর প্লাঙ্কেট শিল্ডের প্রথম রাউন্ড দিয়ে নিউ জিল্যান্ডে শুরু হচ্ছে ঘরোয়া মৌসুম। নভেম্বরের শেষ দিকে ছেলে ও মেয়েদের ওয়ানডে প্রতিযোগিতাও হবে।

প্লাঙ্কেট শিল্ডের চার রাউন্ড হবে মধ্য নভেম্বর পর্যন্ত। পরের ধাপে খেলা শুরু হবে মধ্য মার্চে, শেষ রাউন্ডের খেলা হবে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে। আইপিএল খেলতে বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাতে থাকা আছেন নিউ জিল্যান্ডের ছয় খেলোয়াড়। তারা বাদে কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ প্রত্যেকে খেলোয়াড়কে দেখা যাবে প্লাঙ্কেট শিল্ডের শুরুর দিকে।

ছেলেদের ওয়ানডে প্রতিযোগিতা ফোর্ড ট্রফির ছয় রাউন্ড হবে ডিসেম্বরের টি-টোয়েন্টি সুপার স্ম্যাশ শুরু হওয়ার আগ পর্যন্ত। শেষ ধাপের খেলা হবে ফেব্রুয়ারিতে, ফাইনাল ৫ মার্চ। সুপার স্ম্যাশের আগে হবে মেয়েদের ওয়ানডে প্রতিযোগিতা হ্যালিবার্টন জন্সটোন শিল্ড, ফাইনাল হবে ২৮ মার্চ।

সব ঘরোয়া টুর্নামেন্ট হবে কোভিড-১৯ প্রটোকল মেনে। বল উজ্জ্বল করতে লালা ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা থাকছে এবং আম্পায়ার কোনও খেলোয়াড়ের ক্যাপ বা সোয়েটার ধরে রাখতে পারবেন না।

নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট অপারেশন্স প্রধান রিচার্ড ব্রুয়ার বলেছেন, ‘নতুন নিয়ম অনুযায়ী কোনও ম্যাচে খেলোয়াড়ের মধ্যে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে তার বদলি নামানো যাবে। তার রিপোর্টের ফল নেগেটিভ এলে আবার ম্যাচে ফিরতে পারবেন তিনি।’

নিউ জিল্যান্ডের আন্তর্জাতিক মৌসুম শুরু হবে ২৭ নভেম্বর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি দিয়ে। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে দুটি টেস্টও খেলবে ব্ল্যাক ক্যাপরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানের সফরের ব্যাপারে সরকারের অনুমোদন পেয়েছে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট। এছাড়া আগামী বছর বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সূচিও চূড়ান্ত করেছে তারা। তাদের বিশ্বাস, এই দুটি দেশের ব্যাপারেও সবুজ সংকেত দেবে সরকার।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন