যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবেন বার্সার নতুন প্রেসিডেন্ট

যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবেন বার্সার নতুন প্রেসিডেন্ট

0

ক্রীড়া ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : বার্সেলোনার সভাপতি পদ ছাড়তে বাধ্য হোন। ক্লাবটির নতুন সভাপতি পদের জন্য নির্বাচন হবে আগামী বছরের ২৪ জানুয়ারি। আর সেই নির্বাচনে জিতে কাতালান ক্লাবটির দায়িত্ব পাওয়া নতুন সভাপতি এসেই কিছু চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হবেন।

স্প্যানিশ ক্রীড়া পত্রিকা মার্কায় তুলে ধরা নব নির্বাচিত সভাপতির জন্য সেই চ্যালেঞ্জগুলো রাইজিংবিডির পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

লিওনেল মেসির ভবিষ্যৎ

নব নির্বাচিত সভাপতি যখন দায়িত্ব নিবেন তখন বার্সা অধিনায়ক মেসি চাইলেই ফ্রি ট্রান্সফারের জন্য অন্যান্য ক্লাবের সঙ্গে আলোচনা করতে পারবেন। গত মৌসুমে বার্তোমেউ আইনী প্যাঁচে এই তারকাকে আটকে রাখলেও নতুন সভাপতি কী মেসিকে বার্সায় ধরে রাখতে পারবেন কিনা, সেই প্রশ্ন চলেই আসে। ইতিমধ্যে ম্যানচেস্টার সিটি মেসিকে সামনের মৌসুমে পাওয়ার বিষয়ে আগাম বার্তা জানিয়ে রেখেছে। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত নতুন সভাপতির অধীনে মেসির ভবিষ্যৎ কী হয়, সেটির অপেক্ষায় থাকবে সবাই।

জানুয়ারি ট্রান্সফার উইন্ডো

বার্সার বর্তমান কোচ রোনাল্ড কোমানের ইতিমধ্যে একজন সেন্টার ব্যাক এবং একজন স্ট্রাইকার প্রয়োজন। অথচ নতুন সভাপতি যখন দায়িত্ব নিবেন তার হাতে দলবদলের সময়ে খেলোয়াড় কেনার জন্য মাত্র ৯ দিন সময় থাকবে। তিনি কী পারবেন, কোমানের চাহিদামতো ফুটবলারের যোগান দিতে? এদিকে ক্লাব উসমান দেম্বেলেসহ ৫ জন ফুটবলারকে ছেড়ে দিতে চাইছে। তাদেরকেও কী বেঁচতে পারবেন?

কোমানের ভবিষ্যৎ

বার্তোমেউর সিদ্ধান্তে কিকে সেতিয়েনকে সরিয়ে সাবেক বার্সা তারকা কোমানকে কোচ হিসেবে ফিরিয়েছে ক্লাব। তবে নতুন সভাপতি এসেও যে, কোমানকেই ডাগআউটে দেখতে চাইবেন, সেটি নাও হতে পারে। ইতিমধ্যে সভাপতি পদপ্রার্থী ভিক্তর ফন্ত কোচ হিসেবে পেপ গার্দিওলাকে এবং জাভি-পুয়োলকে ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

বার্সার আর্থিক ক্ষতি কাটানো

গত মৌসুমে ৯৭ মিলিয়ন ইউরো আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। এছাড়াও দেখা গেছে, গত মৌসুমে তাদের আয় ১৮ শতাংশ কমে ৮৫৫ মিলিয়ন ইউরোতে এসে ঠেকেছে। করোনার মাঝে জুনে যা ৪৮৮ মিলিয়নেও নেমেছিল। এরজন্য ফুটবলার থেকে শুরু করে এমপ্লয়ি সবার ৩০ শতাংশ করে বেতন কাটার সিদ্ধান্তও নিয়েছিল বোর্ড। নতুন সভাপতির তাই অন্যতম বড় চ্যালেঞ্জ থাকবে বার্সার আর্থিক ক্ষতি ঠেকানো।

ক্যাম্প ন্যু সংস্কার

বার্সা তাদের ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যু সংস্কারের পরিকল্পনা নিয়েছিল। কিন্তু এর জন্য ন্যূনতম ১০৯ মিলিয়ন ইউরো প্রয়োজন। আর্থিক ক্ষতির দোহাই দেখিয়ে আগের সভাপতি সেটি সংস্কার করেননি। নতুন সভাপতি কী এই চ্যালেঞ্জ নিতে পারবে?

ইউরোপিয়ান সুপার লিগ

বার্তোমেউ পদত্যাগের ঠিক আগেই ঘোষণা দেন ইউরোপিয়ান সুপার লিগে খেলবে বার্সা। সেই চুক্তিও নাকি করেছিলেন তিনি। তবে নতুন সভাপতিও কী একই পথে হাঁটবেন কিনা, সেটি এখন দেখার বিষয়।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন