শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৫:৩৭ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
করোনায় কাজ হারিয়েছেন ৬২ শতাংশ মানুষ আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড মোকাবেলায় গ্লোবাল কল টু এ্যাকশন গ্রহণে নেতৃত্ব দিল বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড মোকাবেলায় গ্লোবাল কল টু এ্যাকশন গ্রহণে নেতৃত্ব দিল বাংলাদেশ ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথম সর্বোচ্চ নেতা আলী খামেনি ভোট দিয়েছেন শ্লোগান নয়, আন্দোলনের মাধ্যমে মুক্ত করতে হবে খালেদা জিয়াকে: গয়েশ্বর খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে স্ট্যান্টবাজিই বিএনপির বর্তমান উদ্দেশ্য: হানিফ শুরু হচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগ পর্ব ফের গাজায় বিমান হামলা চালাল ইসরায়েল বেতন বাড়ছে ক্রিকেটারদের সখীপুরে উপবৃত্তিবঞ্চিত কয়েক হাজার শিক্ষার্থী

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ব্লু-ওয়াইল্ডবিস্টের ঘরে নতুন অতিথি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে নতুন শাবকের জন্ম দিয়েছে আফ্রিকা মহাদেশের প্রাণী ব্লু-ওয়াইল্ডবিস্ট। আজ সোমবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান।
তিনি জানান, শনিবার সকালে পার্কের কোর সাফারি অংশের আফ্রিকান সাফারিতে মা ওয়াইল্ডবিস্টের সঙ্গে নতুন শাবককে দেখতে পাওয়া যায়। আগের দিন রাতে মা ওয়াইল্ডবিস্টটিকে স্বাভাবিক দেখা গেছে। তাই ধারণা করা হচ্ছে, ওইদিন ভোরেই শাবকটির জন্ম হয়েছে। নতুন শাবকটি নিয়ে এই পার্কে ওয়াইল্ডবিস্টের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৪টিতে। তবে নতুন শাবকটি মাদি না পুরুষ তা জানা যায়নি।
তবিরুল রহমান বলেন, ওয়াইল্ডবিস্টের প্রজননে পার্কে আশার সঞ্চার হয়েছে। এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে দেশের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি বিদেশ থেকে ওয়াইল্ডবিস্টের আমদানি নির্ভরতা কমে আসবে।
পার্কের ওয়াইল্ড লাইফ সুপারভাইজার মো. সরোয়ার হোসেন খান বলেন, ২০১৩ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত পুর্ণবয়স্ক ব্লু-ও ব্লাকসহ বিভিন্ন জাতের ওয়াইল্ডবিস্ট এ পার্কে আনা হয়। এ প্রাণিগুলো আফ্রিকা মহাদেশের দক্ষিণ-পূর্ব দেশগুলোতে প্রাকৃতিক পরিবেশে বিচরণ করতে দেখা যায়। এরা তৃণভূমিতে এক সঙ্গে পালে চলাফেরা করে থাকে। প্রতিটি বাচ্চার ওজন হয় সাধারণত ১৯ কেজির মতো। প্রথমে বাচ্চাদের গায়ের রং ধূসর (টনি ব্রাউন) এবং পূর্ণ বয়স্ক হলে তার বর্ণ হয় নীলাভ ধূসর। প্রতিবার এরা সাধারণত একটি করে বাচ্চা প্রসব করে থাকে। আট মাস থেকে এক বছর পর্যন্ত এরা মায়ের সঙ্গে থাকে ও দুধ পান করে। এক সপ্তাহ পর থেকে মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘাস খেতে চেষ্টা করে। পরে তারা স্বাধীনভাবে বিচরণ করে থাকে। এরা ছোট ঘাস ক্ষেতে বেশি পছন্দ করে। পুরুষ বাচ্চারা দুই বছর এবং মাদি বাচ্চারা ১৬ মাসে প্রজননক্ষম হয়। প্রাকৃতিক পরিবেশে ব্লু-ওয়াইল্ডবিস্ট ২০বছর এবং আবদ্ধ পরিবেশে ২৪ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারে।
তিনি বলেন, প্রসবের কয়েক মিনিট পর শাবক উঠে দাঁড়ায় এবং দৌঁড়াতে শুরু করে। শাবকটি এখন আফ্রিকান সাফারিতে মায়ের সঙ্গে খেলা করে বেড়াচ্ছে, দৌঁড়াচ্ছে। মানুষ দেখলে তারা নিরাপদ দূরত্বে সরে যাচ্ছে। নিরাপত্তার স্বার্থে কাউকে তাদের কাছে যেতেও দেওয়া হচ্ছে না।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com