রবিবার, ১৩ Jun ২০২১, ১১:২৬ অপরাহ্ন

শ্রেণিকক্ষ পরিষ্কার করতে বলায় নারী প্রধান শিক্ষককে মারধর করলো দপ্তরি!

শ্রেণিকক্ষ খুলে পরিষ্কার করতে বলায় ময়মসিংহের গফরগাঁওয়ে প্রধান শিক্ষককে পেটালেন দপ্তরী। শুধু পিটিয়েই থেমে যাননি অভিযুক্ত ব্যক্তি, পরিবারের লোকজন ডেকে অকথ্য ভাষায় করেছেন গালাগালি। প্রকাশ্যে এমন মারধরের শিকার হয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন ওই নারী শিক্ষক।

ঘটনা বৃহস্পতিবার দুপুরের। ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের বারইহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নীলুফা খানম স্কুলে ডাকেন দপ্তরি রাকিবকে। বলেন, শ্রেণিকক্ষ পরিষ্কার করতে। কারণ দীর্ঘ বন্ধে কক্ষগুলোতে পড়ে গেছে ধুলার আস্তরণ।

দপ্তরি রাকিব সরাসরি ক্লাসরুম পরিষ্কার করতে অপারগতা জানান। বন্ধে কোনোরকম কাজ করতে পারবে না বলে সাফ উত্তর দেন। অভিযোগ, এক কথা দু’ কথা হতে হতে স্কুলের মাঠেই প্রধান শিক্ষক নীলুফাকে মারধর করেন দপ্তরি। এসময় রাকিবের ভাই এসেও গালমন্দ করেন নীলুফাকে।

প্রকাশ্যে মারধরের ঘটনার পর থেকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত প্রধান শিক্ষক নিলুফা।যমুনা নিউজকে প্রতিক্রিয়া জানানোর সময় অপমানে কান্না করে ফেলেন। বলেন, সে আমাকে মারার জন্য খুন্তি নিয়ে আসে। অন্যরা বাধা দেয়ায় স্কুলের মাঠে আমার মাথায় সজোরে ঘুষি মারে। আমি হেড মিস্ট্রেস, আমাকে এভাবে মারতে পারে সে!

রাকিবের বিরুদ্ধে মাদকসেবনের অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, সে নিয়মিত গাঁজা, ইয়াবা সেবন করে। কিছু করতে বললে ক্ষেপে উঠে।

ঘটনার সময় আশপাশের লোকজন দপ্তরি রাকিবকে আটকালে বড় ধরনের দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পান প্রধান শিক্ষক। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিয়েছেন মারধরের শিকার শিক্ষক। পুলিশ বলছে, তারা দ্রুতই ব্যবস্থা নেবে।

গফরগাঁও পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাশেদুজ্জামান বলেন, এ ঘটনার কথা জেনেছি। শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে থেকে অভিযোগ পেলে সে মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com