বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন

৩০ দিনের ছুটি নিয়ে ডাক্তার সাড়ে তিন মাস আমেরিকায়

ব্যক্তিগত কাজে ৩০ দিনের অর্জিত ছুটি নিয়ে গোপনে সাড়ে তিন মাস ধরে আমেরিকায় অবস্থান করছেন গাজীপুরের টঙ্গীর শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. পারভেজ হোসেন। অভিযোগ উঠেছে, গত ১ অক্টোবর ৩০ দিনের ছুটি শুরু হলেও তিনি আমেরিকার উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন গত ১৩ আগস্ট।

ডা. পারভেজ একাধারে ১১ বছর ধরে  টঙ্গীর ওই হাসপাতালে কর্মরত। এর মধ্যে সাত বছর ধরে আঁকড়ে আছেন আরএমওর পদ।

টঙ্গীর পুবাইলের বসুগাঁও এলাকার বাসিন্দা এবং দীর্ঘদিন ধরে একই স্থানে কর্মরত থাকায় হাসপাতালে তাঁর রয়েছে একচ্ছত্র প্রভাব।

ডা. পারভেজের আত্মীয় সূত্রে জানা গেছে, মেডিক্যাল অফিসার ডা. মাসুদ রানাকে ভারপ্রাপ্ত আরএমওর দায়িত্ব দিয়ে দুবাই হয়ে গত ১৪ আগস্ট আমেরিকার নিউ ইয়র্ক পৌঁছান ডা. পারভেজ। সেখানে নাগরিকত্বের চেষ্টার পাশাপাশি তিনি নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটিতে এমডি ডিগ্রি করছেন।

হাসপাতালের একাধিক চিকিৎসক নাম না প্রকাশের শর্তে জানান, ডা. পারভেজ প্রতিবছরই অর্জিত ছুটির নাম করে আমেরিকায় গিয়ে তিন থেকে চার মাস থাকেন। দেশে ফিরে চিকিৎসার কথা বলে সনদ দিয়ে ডিজি অফিস থেকে ছুটি মঞ্জুর করিয়ে নেন।

গত বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) হাসপাতালে গিয়ে ডা. পারভেজের কক্ষটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাসপাতালের প্রধান সহকারী ফজলুর রহমান সরদার বলেন, ‘পারভেজ স্যার ৩০ দিনের ছুটিতে আছেন। ১৪ আগস্ট থেকে ভারপ্রাপ্ত আরএমও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ডা. মাসুদ। ’

ভারপ্রাপ্ত আরএমও ডা. মাসুদ রানাকেও হাসপাতালে পাওয়া যায়নি। মোবাইল ফোনে তিনি বলেন, ‘১৪ আগস্ট ভারপ্রাপ্ত আরএমও হিসেবে তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ডা. পারভেজ আমেরিকায় গেছেন কি না—প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এ কথাটি মোটেও সঠিক নয়। ডা. পারভেজ ১ অক্টোবর থেকে ৩০ দিনের ছুটিতে গেছেন। ’ ১ অক্টোবর ছুটিতে গেলে তিনি (ডা. মাসুদ) কিভাবে ১৪ আগস্ট থেকে ভারপ্রাপ্ত আরএমও হলেন এবং ১৩ আগস্ট থেকে ডা. পারভেজ হাসপাতালে অনুপস্থিত কেন—জানতে চাইলে ডা. মাসুদ বলেন, ‘এসব বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালক ভালো বলতে পারবেন। ’

ডা. পারভেজের বাড়িতে গিয়েও পরিবারের কাউকে পাওয়া যায়নি। মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে ছোট বোন গাজীপুর শহরের বাসিন্দা লিপি আক্তার জানান, তাঁর ভাই আমেরিকায় আছেন, নভেম্বরের শেষ দিকে দেশে ফেরার কথা। আমেরিকার মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করে এ প্রতিবেদক কথা বলেন ডা. পারভেজের সঙ্গে। তিনি জানান, ব্যবসার কাজে সিঙ্গাপুরে আছেন। তাঁর সঙ্গে কথোপকথনের রেকর্ডিং কালের কণ্ঠের কাছে রয়েছে।

হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘ডা. পারভেজ দেশেই আছেন। অর্জিত ছুটিতে গিয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁর মাথায় গুরুতর সমস্যা ধরা পড়েছে, চিকিৎসা চলছে বলে তাঁর স্ত্রী সালমা সুলতানা জানিয়েছেন। ’

ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আরো বলেন, ‘তিন-চার দিন আগে ডা. পারভেজের স্ত্রী এসেছিলেন ছুটি বৃদ্ধির আবেদন নিয়ে। দু-তিন দিনের মধ্যে তিনি চাকরিতে যোগদান করবেন। ১৪ আগস্ট থেকে কেন অনুপস্থিত, তা তিনি যোগদানের পর জানা যাবে। ছুটি ছাড়া কত দিন অনুপস্থিত ছিলেন তার হিসাব করে ছুটি মঞ্জুরের সুপারিশ স্বাস্থ্য বিভাগের ডিজির কাছে পাঠানো হবে। আশা করি সমস্যা হবে না। আমরা সবাই তো তাঁর পাশে আছি। ’

এ প্রসঙ্গে জানতে স্বাস্থ্য বিভাগের ঢাকা বিভাগীয় পরিচালক ডা. ফরিদ হোসেন মিঞা ও উপপরিচালক ডা. এ বি এম আবু হানিফের মোবাইল ফোনে গতকাল শুক্রবার বিকেলে একাধিকবার কল দিয়ে বন্ধ পাওয়া যায়। সহকারী পরিচালক ডা. চৌধুরী মোহাম্মদ ইকবাল বাহারের মোবাইলে কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেনি। মোবাইলে খুদে বার্তা দেওয়া হলেও সাড়া দেননি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com