শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন

জীবন্ত কিংবদন্তি অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদার

কখনো স্বপ্নেও ভাবেননি অভিনেত্রী হবেন। রক্ষণশীল পরিবারের মেয়ের জন্য সেটাই ছিল স্বাভাবিক। সেই পরিবারের ভেতর থেকেই দুঃসাহসিকতার পরিচয় দিয়ে হয়ে ওঠেন নাট্যকর্মী এরপর দ্যুতি ছড়িয়ে নামের সঙ্গে যুক্ত করেন ‘মঞ্চসম্রাজ্ঞী’ তকমা। মঞ্চের পাশাপাশি টিভি নাটকেও অভিনয়ের শুভ্রতা ছড়িয়েছেন তিনি। বলা হচ্ছে, নাটকের জীবন্ত কিংবদন্তি অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদারের কথা। অভিনয়ের সঙ্গে নিজেকে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে রাখলেও এখন অভিনয় থেকে অনেকটা দূরে তিনি। সদ্য আশিতে পা দেওয়া বরেণ্য এই তারকা এখন কেমন আছেন? কোথায় আছেন? কীভাবে কাটছে তার চলমান সময় এ রকম নানা কৌতূহল মেটাতে এই অভিনেত্রীর মুখোমুখি হয় তারার মেলা।

আষাঢ়ের মধ্য দুপুর। আকাশ জুড়ে কালো মেঘের ছোটাছুটি শেষে ঝুম বৃষ্টি। প্রকৃতির প্রাণচঞ্চল্যতায় অনেকটা শান্ত-স্থবিরতা বিরাজ করছে নগরীর পরতে পরতে। এমনই পরিবেশে কড়া নাড়া হয় ফেরদৌসী মজুমদারের মুঠোফোনে। প্রথমবার সাড়া না পেয়ে ব্যক্তিগত ফোনে চেষ্টা করতেই জবাব মেলে ও প্রান্ত থেকে। বয়সের দৌড়ে অনেকগুলো বসন্ত পার করে এলে হাঁপিয়ে ওঠেননি তিনি। ৮০ বছর বয়সেও নিজ ক্যারিয়ারের মতো দৃঢ় তার স্পষ্ট শব্দ চয়ন। কুশল বিনিময় শেষ করেই জানালেন এই বয়সে শারীরিকভাবে অনেকটাই ভালো আছেন তিনি। মানসিক শক্তিটা আরও সবল। ‘আপনার আরও দীর্ঘায়ু কামনা করছি’ বলতেই এই কিংবদন্তি বলে উঠলেন, ‘না না। জীবনের শেষ প্রান্তে চলে এসেছি। জন্ম যখন হয়েছে মৃত্যু অবধারিত। এখন আর দীর্ঘায়ু আশা করি না। চাই জীবনের শেষ পর্যন্ত যেন সচল হয়ে কাজের মাধ্যমে বেঁচে থাকতে পারি। অচল হয়ে বেঁচে থাকা অর্থহীন। অচল হয়ে যেন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করতে না হয়, সেই দোয়া করেন।’

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com