সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:২৭ অপরাহ্ন

যুদ্ধবিরতির আলোচনায় প্রতিনিধিদল পাঠাতে সম্মতি নেতানিয়াহুর

গাজায় যুদ্ধবিরতি চুক্তির জন্য হামাসের সঙ্গে পরোক্ষ আলোচনা পুনরায় শুরু করতে প্রতিনিধিদল পাঠানোয় অনুমোদন দিয়েছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। শুক্রবার তিনি অনুমোদন দেন। ইসরায়েলের একজন কর্মকর্তা বলেন, কায়রোতে আলোচনার জন্য শিন বেট ও মোসাদের কর্মকর্তাদের পাঠানো হবে। মোসাদ প্রধান ডেভিড বার্নিয়া এবং শিন বেট প্রধান রনেন বার আলোচনায় অংশ নেবেন বলে মনে করা হচ্ছে না। খবর বাংলানিউজের।

তবে তারা দোহায় পরবর্তী আলোচনায় যোগ দিতে পারেন, বলেন এক ইসরায়েলি কর্মকর্তা। সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নিরাপত্তা প্রধানদের পরিস্থিতি বিবেচনায় কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন নেতানিয়াহু। এর আগে সোমবার হামাস সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে।

এতে ইসরায়েল বেশিরভাগ আলোচনাকারী দলকে প্রত্যাহার করে নেয়। তবে বেশ কয়েকটি নিউজ আউটলেট খবরে জানায়, মোসাদের একটি ছোট দল আলোচনা চালিয়ে যেতে কাতারে রয়ে গেছে। সোমবার রাতে হামাস বলে, তারা মধ্যস্থতাকারীদের মূল দাবিতে ফেরার কথা জানিয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে স্থায়ী যুদ্ধবিরতি, গাজা থেকে ইসরায়েলি সৈন্যদের প্রত্যাহার, বাস্তুচ্যুতদের প্রত্যাবর্তন এবং প্রকৃতপক্ষেই বন্দিদের মুক্তি। তবে ইসরায়েল এসব দাবি বিভ্রান্তিকর হিসেবে প্রত্যাখ্যান করে আসছে। গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বানে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সোমবার একটি প্রস্তাব পাস করে। নিরাপত্তা পরিষদ গাজায় ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাসের মধ্যে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির পাশাপাশি জিম্মিদের নিঃশর্ত মুক্তি চায়।

এদিকে শুক্রবার বিবিসি জানায়, আগের দিন জাতিসংঘের শীর্ষ আদালত দুর্ভিক্ষ এড়াতে ইসরায়েলকে গাজায় নিরবচ্ছিন্ন ত্রাণ প্রবাহ চালুর নির্দেশ দিয়েছে। কয়েক সপ্তাহের মধ্যে গাজায় দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে, এমন সতর্কতার পর আদালতের এ আদেশ এলো। তবে ইসরায়েল সাহায্য বন্ধ করার অভিযোগকে সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বলে আখ্যা দেয়। আন্তর্জাতিক আদালতের নিরবচ্ছিন্ন ত্রাণ প্রবাহ চালুর নির্দেশ দেওয়ার পরদিনই নেতানিয়াহু যুদ্ধবিরতির আলোচনার সম্মতি দিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com