বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

ট্রাম্পকে অভিশংসের ভোট নিয়ে অনিশ্চয়তা

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে ২০১৯ সালে একবার প্রতিনিধি পরিষদে অভিশংসিত হয়েছিলেন। তবে, সে দফায় সিনেটে ভোটাভুটিতে তার পদ রক্ষা হয়। এবারও ক্যাপিটলে হামলার উস্কানি দেয়ার অভিযোগে ট্রাম্পকে অভিশংসিত করেন প্রতিনিধি পরিষদের সদস্যরা। প্রতিনিধি পরিষদে পাস হওয়া এই প্রস্তাব যাবে এখন কংগ্রেসের উচ্চ কক্ষ সিনেটের শুনানিতে

তবে, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে সিনেটে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রস্তাবে ভোট নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা। কারণ ২০ জানুয়ারির আগে নেই কোন সিনেট অধিবেশন। প্রেসিডেন্ট পদ থেকে ট্রাম্পকে সরাতে অভিশংসন নিয়ে সিনেটের জরুরি অধিবেশন ডাকার সম্ভাবনা নাকচ করেছেন রিপাবলিকানদের নেতা মিচ ম্যাককনেল। বিবৃতিতে তিনি বলেন, এখন সময় শান্তিপূর্ণভাবে ২০ জানুয়ারি ক্ষমতা হস্তান্তরের দিকে মনযোগ দেয়া।

ফলে মেয়াদ পূর্ণ করেই হোয়াইট হাউজ ছাড়ার সম্ভাবনাই বেশি ডোনাল্ড ট্রাম্পের। তবে, ২০ জানুয়ারির পরে সিনেট অধিবেশনে চলতে পারে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আনা অভিশংসন শুনানি।  ১০০ সদস্যের সিনেটে এখন ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান সমান সমান। সেক্ষেত্রে ট্রাম্পকে অভিশংসিত করতে প্রয়োজন ৬৭ আইন প্রণেতার সমর্থন। যেখানে ট্রাম্পের বিপক্ষে ভোট দিতে হবে ১৭ রিপাবলিকানকে।

অবশ্য ক্ষমতা ছাড়ার পরও ট্রাম্প অভিশংসিত হলে, আইন প্রণেতারা ১৪তম সংশোধনী নিয়ে আরও একটি ভোটের আয়োজন করতে পারবেন, সেখানে রিপালিকানরা হেরে গেলে ট্রাম্প পরবর্তীতে আর কোনও নির্বাচন করতে পারবেন না। এর আগে ২০২৪ সালে আবারও নির্বাচন করার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com