শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫৮ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের একটি পাখিও পশ্চিমবঙ্গে ঢুকতে পারবে না: অমিত শাহ

বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) ভারতে পশ্চিমবঙ্গে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে কোচবিহার ও ঠাকুরনগরের দুইটি জনসভায় তিনি এ দাবি করেন বলে বিবিসির একটি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

সভায় অমিত শাহ প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, অনুপ্রবেশ নিয়ে আপনারা বিরক্ত কিনা বলুন? আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি আদৌ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে পারবেন?

তিনি বলেন, জেনে রাখুন রাজ্যে ক্ষমতার পরিবর্তন হলেই কেবল অনুপ্রবেশ বন্ধ হবে। বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসলে সীমান্ত দিয়ে মানুষ তো দূরে থাক, একটা পাখিও ঢুকতে পারবে না দেখে নেবেন।’

অমিত শাহের সভায় এ কথা বলার আগের দিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে পশ্চিমবঙ্গ পার্লামেন্টে লিখিত জবাবে জানানো হয়েছে, ২০১৬ সাল থেকে পরের পাঁচ বছরে বাংলাদেশ থেকে ভারতে অনুপ্রবেশের ঘটনা বিপুল হারে কমেছে।

অমিত শাহের এই বক্তব্যের জবাবে তৃণমূলের এমপি মানসরঞ্জন ভুঁইঞা গণমাধ্যমকে বলেন, তার এই বক্তব্য পুরোটাই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সীমান্তে বেড়া দেওয়ার দায়িত্ব পশ্চিমবঙ্গ কেন্দ্রীয় সরকারের, সেই বেড়া দেওয়ার কাজ অসম্পূর্ণ রয়ে গেছে। তাছাড়া বাইরের দেশ থেকে যারা অবৈধভাবে ভারতে ঢুকবেন, তাদের বাধা দেওয়া বা তাদের ওপর নজরদারি করার দায়িত্ব বিএসএফের, যারা কিনা কেন্দ্রীয় সরকারের বাহিনী। ফলে কী করে তারা অনুপ্রবেশের জন্য মমতা ব্যানার্জির সরকারের ঘাড়ে দোষ চাপাতে পারেন?’

মানস রঞ্জন ভুঁইঞা বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকারই তো বলেছে বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ কমে গেছে, তারপরও এসব কথা বলার অর্থ নিছক।’

তিনি আরো বলেন, ‘এটা জেনে রাখুন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তার সরকার সব ব্যাপারেই সজাগ এবং তিনি কখনই অনুপ্রবেশকে মদদ দেন না, দেন না, দেন না।’

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com