রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন

ভাসানচরে ১০ হাজার ১৬ জন রোহিঙ্গা

মঙ্গলবার সকালে চট্রগ্রামের বোটক্লাব থেকে ছেড়ে আসা রোহিঙ্গাদের বহনকারী নৌ-বাহিনীর তিনটি জাহাজ দুপুর আড়াইটার সময় পৌছায় হাতিয়ার ভাসানচরে। এই যাত্রায় এলেন ২৮৮ জন নারী, ২৩৭ জন পুরুষ ও ৪৮৬ জন শিশুসহ ১ হাজার ১১ জন রোহিঙ্গা। এটা রোহিঙ্গাদের আনুষ্ঠানিকভাবে ভাসানচর আসার চতুর্থ ধাপের দ্বিত্বীয় অংশ। এর আগে চতুর্থ ধাপের প্রথম অংশে সোমবার ২ হাজার ১০ জন রোহিঙ্গা ভাসানচরে পৌঁছেছে।

ভাসানচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মাহে আলম জানান, নিয়মানুযায়ী মঙ্গলাবার আসা রোহিঙ্গাদের প্রথমে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়। এর পর নিয়ে যাওয়া হয় রোহিঙ্গাদের জন্য তৈরি আশ্রায়ন প্রকল্পের ওয়্যার হাউজে। সেখানে তাদের ভাসানচরে বসবাসের বিভিন্ন নিয়মকানুন সম্পর্কে ধারনা দেন নৌ-বাহিনীর সদস্যরা।

বরাবরের মতো মঙ্গলাবারও ভাসানচর অভিমুখী রোহিঙ্গাদের চোখেমুখে ছিল আনন্দের ঝিলিক। কারণ আধুনিক সুযোগ-সুবিধায় গড়ে ওঠা পরিকল্পিত এই অস্থায়ী আবাসনের বিষয়ে বিস্তারিত জেনেই তারা ছেড়েছে উখিয়ার শরণার্থী ক্যাম্প। ভাসানচরে পৌঁছানোর পরে তাদের গ্রহণ করে নেওয়া হয় সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে।

জানা যায়, ভাসানচরে প্রথম দফায় এক হাজার ৬৪২ জন রোহিঙ্গা স্থানান্তরিত হয় গত বছরের ৪ ডিসেম্বর। এরপর ২৯ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় সেখানে পৌঁছায় আরও এক হাজার ৮০৪ জন। তৃতীয় দফায় ২৯ ও ৩০ জানুয়ারি দুই ধাপে স্থানান্তরিত হয় তিন হাজার ২৪৩ জন। সাগরপথে অন্য দেশে পাড়ি দিতে ব্যর্থ হওয়া বোটে ভাসমান ৩০৬ রোহিঙ্গার আশ্রয় মিলেছিল আগেই। সবশেষে গতকাল সোমবার চতুর্থ ধাপের প্রথম অংশে এলেন ২হাজার ১০জন রোহিঙ্গা। সবমিলিয়ে মঙ্গলবার পর্যন্ত ভাসানচরে রোহিঙ্গার সংখ্যা ১০ হাজার ১৬জন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com