বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৬:৪৬ অপরাহ্ন

সত্যজিৎ রায়ের পৈত্রিক ভিটায় স্মৃতি জাদুঘর গড়ে তোলার আহ্বান টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার উপ-মহাদেশের প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার সত্যজিৎ রায়ের স্মৃতি সংরক্ষণে তাঁর পৈত্রিক ভিটায় স্মৃতি জাদুঘর গড়ে তুলতে সংস্কৃতিকর্মীদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ‘সত্যজিৎ রায় বাংলা ও বাঙালির গৌরবের ধন। কেবল বাংলা চলচ্চিত্রেই নয়, দুনিয়ার সব-ভাষার চলচ্চিত্রের শ্রেষ্ঠজনদের অন্যতম সত্যজিৎ রায় ছিলেন অসাধারণ মেধাবী ও সৃজনশীল একজন মানুষ। গ্রাফিক্স-ডিজাইনসহ বাংলা টাইপোগ্রাফি বা হরফ মালা সৃষ্টির জন্য তিনি অসাধারণ কাজ করে গেছেন। বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদি উপজেলার মসুয়া গ্রামস্থ পৈত্রিক ভিটায় সত্যজিৎ রায়ের স্মৃতি সংরক্ষণে স্মৃতি জাদুঘর গড়ে তোলার মাধ্যমে মহান এ মানুষটিকে চিরস্মরণীয় করে রাখার জন্য সংস্কৃতিকর্মীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।’
বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি মোস্তাফা জব্বার আজ রোববার রাজধানীতে উপ-মহাদেশের প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার ও বৃহত্তর ময়মনসিংহের কীর্তিমান প্রবাদপুরুষ সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক ভার্চ্যূয়াল আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরাম এ আলোচনা সভার আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।
সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতির আহবানের পরিপ্রেক্ষিতে সত্যজিৎ রায়ের স্মৃতি সংরক্ষণে তাঁর পৈত্রিক ভিটায় অবিলম্বে স্মৃতি জাদুঘর করার কাজ সম্পন্ন করার প্রতিশ্রুতি দেন।
বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, জাতীয় কবি কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর এসএম মোস্তাফিজুর রহমান, সাবেক সচিব আবদুস সামাদ, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ, চলচ্চিত্র শিল্পি সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মাহমুদ সাজ্জাদ প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।
ফোরামের সেক্রেটারি রাশেদুল হাসান শেলী অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com