শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ইন্টারনেট নির্ভরতা যতো বেশি তৈরী হচ্ছে , ডিজিটাল অপরাধ ততো বেশি বাড়ছে : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র : সমৃদ্ধির পথে তিস্তার চরাঞ্চল রাঙ্গামাটিতে হাইফ্লো অক্সিজেন সাপোর্ট ও করোনা ইউনিটের উদ্বোধন পিছিয়ে পড়েও লিড নিলো বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল টাস্কফোর্সের সভা : শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে চামড়া শিল্প কর্তৃপক্ষ নামে নতুন কর্তৃপক্ষ গঠনের প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার চায় ঢাকা বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব দেশের মানুষ ভালো আছে বলেই বিএনপি ভালো নেই: ওবায়দুল কাদের জনগণের ভোট ও রায়ের ওপর নির্ভরকারীদের জন্য নির্বাচন বর্জন আত্মহননমূলক: তথ্যমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল : পরিকল্পনামন্ত্রী

২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দিবেন প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে ২৪ সেপ্টেম্বর বিকালে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটি হবে তাঁর জাতিসংঘে ১৮তম ভাষণ।

জাতিসংঘ সচিবালয় উল্লেখ করেছে যে, এ বিশ্বসংস্থার ইতিহাসে আর কোনো দেশের প্রেসিডেন্ট/প্রধানমন্ত্রীর এমন ভাগ্য হয়নি।

সূত্রটি আরও জানিয়েছেন, জাতিসংঘ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কার্যক্রমে অসাধারণ অবদানের জন্য শেখ হাসিনার মতো আর কেউই এত বেশি অ্যাওয়ার্ড লাভেও সক্ষম হননি। শেখ হাসিনার ঝুড়িতে নেতৃত্বে বিচক্ষণতায় মানুষের জীবনমানের উন্নয়নে সাফল্য প্রদর্শনের ২৭টির অধিক অ্যাওয়ার্ড রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ অধিবেশনে ভাষণের পর নিউইয়র্কে কর্মরত সাংবাদিকদের নিয়ে প্রেস কনফারেন্সেও শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি মিলিত হবেন। প্রবাসীদের একটি সমাবেশেও ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নতুন নেতৃত্বের নামও ঘোষণা করতে পারেন।

সূত্র জানান, ২৫ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনার ওয়াশিংটন ডিসির উদ্দেশে নিউইয়র্ক ত্যাগের কথা রয়েছে। সেখানে চিকিৎসার ফলোআপ ছাড়াও মার্কিন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে তাঁর ভার্চুয়ালি বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে একেবারেই নগণ্যসংখ্যক প্রতিনিধি দল নিয়ে বাংলাদেশের নেতা শেখ হাসিনা ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণ করবেন। বিশেষ ফ্লাইটে নিউইয়র্কে আসার পর স্বাস্থ্যবিধি শতভাগ মেনে সাধারণ অধিবেশনে অংশ নেবেন তিনি। সেখানে বিশ্বনেতারা সশরীরে উপস্থিত হয়ে নিজ নিজ বক্তব্য উপস্থাপনের সুযোগ পেলেও সদস্য দেশসমূহের ডেস্কেও বসবেন সীমিতসংখ্যক কূটনীতিক/পদস্থ কর্মকর্তারা। গণমাধ্যমকর্মীদের গতিবিধিও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়েছে।

সাংবাদিকদের বিস্তারিত তথ্য জানতে হবে জাতিসংঘের টিভি ফুটেজ ও ওয়েবসাইট থেকে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com