শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৩৪ অপরাহ্ন

পানিবন্দী তিস্তাপাড়ের ২৪ হাজার মানুষ

পানির তোড়ে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে নীলফামারির ব্যারেজ সংলগ্ন ফ্লাড বাইপাসে। একে একে ভাঙ্গন শুরু হয় জেলার নয়টি বাঁধে। এরপরই ডিমলা ও জলঢাকার অন্তত ২৪ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়ে।

মঙ্গলবার রাত থেকে আসা পানি দুপুরের মধ্যে বিপৎসীমার ৭০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত উঠে যায়। পানির তোড়ে ভেসে যায় ঘরবাড়ি। ডুবে যায় ফসলের ক্ষেত।

ভুক্তভোগীরা জানান, কিছু বুঝে ওঠার আগেই পানি ঢুকে ঘরবাড়িতে।   এতে অল্প সময়ে যে যােপেরেছেন প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র নিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন বাঁধে।   কেউ আবার আশ্রয় নিয়েছেন উঁচু রাস্তায়।

পানিবন্দী এসব মানুষকে সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে জেলা প্রশাসন। আর ভাঙ্গন ঠেকাতে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়েছে নীলফামারি জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, লালমনিরহাটে ৫ উপজেলার প্রায় ৩০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। তলিয়ে গেছে প্রায় ১৫ হাজার একর জমির আমন ধান, ভুট্টা, আলু ও শাক-সবজী ক্ষেত। ভেসে গেছে ৮০টি পুকুরের মাছ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com