রবিবার, ২৩ Jun ২০২৪, ০২:১৮ পূর্বাহ্ন

পাত্রী খুঁজতে খুঁজতে ক্লান্ত যুবকের আত্মহত্যা

বয়স বেড়ে যাচ্ছে বিয়ে করতে পারছেন। ২৫ এর পর থেকে পাত্রী খোঁজা শুরু। প্রায় ৮-৯ বছরে খুঁজে খুঁজে ক্লান্ত যুবক। এমন কোনো জায়গা বাদ দেন নাই তবুও মনের মত পাত্রী না পেয়ে হাতাশ হয়ে আত্মহত্যা করেন এক যুবক।

জানা যায়, ভারতের কর্ণাটকের হাভেরিতে এক ব্যক্তির মৃত্যু ঘিরে এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া। ৩৬ বছর বয়সী ওই যুবক আত্মহত্যার রাস্তা বেছে নিয়েছেন। জানা গেছে, বিয়ের জন্য পছন্দের পাত্রী না খুঁজে পেয়ে নিজের প্রাণ দিয়েছেন তিনি।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, এই ঘটনা হাভেরির মঞ্জুনাথ নাগানুরের। গত ৮ বছর ধরে তিনি বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছিলেন। যেভাবে আর চার পাঁচটা ভারতীয় পরিবারে বিবাহযোগ্য সদস্যের জন্য বিয়ের প্রস্তুতি চলে, নাগানুরের পরিবারেও তা চলছিল। কর্ণাটকের এক কৃষক পরিবারের সদস্য নাগানুরের বিয়ের জন্য দেখা হচ্ছিল বহু পাত্রী। তবে তা দেখতে দেখতে ৮ বছর কেটে গেছে। তাতেও খোঁজ মেলেনি বিয়ের সুযোগ্য পাত্রীর।

পুলিশ জানিয়েছে, পাত্রী না পেয়ে ধীরে ধীরে অবসাদে পড়েন নাগানুর। আশপাশের এলাকার মানুষও বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন করেন। অবসাদ থেকেই শেষমেশ নিজের জীবন হননের রাস্তা বেছে নেন নাগানুর। নিজের মনের মধ্যে জমে থাকা রাগ, দুঃখ থেকে এভাবে আত্মহত্যা করেন তিনি।

নাগানুরের একটি সুইসাইড নোট ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে। সেখানেই মনের রাগ, দুঃখের কথা জানিয়েছেন ৩৬ বছর বয়সী ওই যুবক। নাগানুর সেই চিঠিতে লিখেছেন, পাত্রী খুঁজে বের না করতে পারার জন্য, তার বাবা মাও অবসন্ন হয়ে পড়েন। বাবা মায়ের এই কষ্ট দেখতে পারছিলেন না তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com