শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১১:১৯ অপরাহ্ন

তালাবদ্ধ বিএনপি কার্যালয়

নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে চূড়ান্ত সংলাপের উদ্যোগ নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এই সংলাপে অংশ নিতে বিএনপিকে চিঠি দিতে গিয়েছিলেন মো. মহসিন নামের নির্বাচন কমিশনের একজন বার্তাবাহক। কিন্তু রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় তালাবদ্ধ থাকায় কয়েক ঘণ্টা অপেক্ষা করেও দলটির কারও হাতে চিঠি দিতে পারেননি তিনি। শেষে তালাবদ্ধ ওই কার্যালয়ের কলাপসিবল গেটের ফাঁক দিয়ে হাত ঢুকিয়ে ভেতরে থাকা একটি চেয়ারের ওপর চিঠিটি রেখে এসেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সপ্তাহের শেষ কর্মদিবসে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনের পরিচালক (জনসংযোগ) মো. শরিফুল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘যতটা জানি, উনি (মহসিন) তালার সঙ্গে (বিএনপি কার্যালয়ে লাগানো তালা) চিঠিটা ঝুলিয়ে রেখেছেন। তবে নিশ্চিত করতে পারছি না।’

তবে নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, তালাবদ্ধ কলাপসিবল গেটের ভেতরে রাখা একটি চেয়ারের ওপর সাদা রঙের খামে চিঠিটি রয়েছে। সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা জানিয়েছেন, নির্বাচন কমিশনের ওই বার্তাবাহক চিঠি নিয়ে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করেন। বেলা সাড়ে ৩টার দিকে চিঠিটি চেয়ারের ওপর রেখে চলে যান তিনি।

গত ২৮ অক্টোবর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে দলটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে এক পুলিশ সদস্য ও বিএনপির অঙ্গসংগঠন যুবদলের এক নেতা নিহত হন। ওই সংঘর্ষের কারণে বিএনপির মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়। তখন থেকেই কার্যালয়ের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে আছে পুলিশ।

এদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতির অগ্রগতিসহ সার্বিক বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিতে ৪৪টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলকে চিঠি দিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। গতকাল বুধবার থেকে রাজনৈতিক দলগুলোকে এই চিঠি দেওয়া হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে বিএনপিকেও এই আলোচনায় যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানাতে চিঠিটি দিতে গিয়েছিলেন নির্বাচন কমিশনের ওই বার্তাবাহক। নির্বাচন কমিশনের পরিচালক (জনসংযোগ) শরিফুল আলমের সই করা চিঠি রাজনৈতিক দলগুলোকে দেওয়া হচ্ছে। বিএনপির কার্যালয়ের চেয়ারের ওপর থাকা খামে দেখা যাচ্ছে, বিএনপি মহাসচিব বরাবর চিঠিটি দেওয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com