বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন

কঠোর ভিসা নীতির পরিকল্পনা যুক্তরাজ্যের

অভিবাসন কমাতে অভিবাসন নীতিতে বড় পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। কর্মদক্ষতার ভিত্তিতে বেতন বাড়ানোর ঘোষণাও দিয়েছে দেশটির প্রশাসন। মূলত যুক্তরাজ্যে বিদেশী শিক্ষার্থীদের অভিবাসন কমাতে দক্ষ শ্রমিক নীতি ঘোষণা করেছে দেশটি। খবর এনডিটিভি।

২০২২ সালের যুক্তরাজ্যে অভিবাসী ছিল সাত লাখ ৪৫ হাজার। এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে অবৈধপথে অভিবাসন প্রত্যাশীর চাপ বেড়েছে। এ অবস্থায় ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক অভিবাসন কমানোর ঘোষণা দিয়েছেন। গেল বছরের পরিসংখ্যান নতুনভাবে প্রশাসনিক চাপ সৃষ্টি করায় নতুন কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্রিটেন সরকার।

অভিবাসনের মাধ্যমে যুক্তরাজ্য লাভবান হবে বলে মনে করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী। মাইক্রো ব্লগিং প্লাটফর্ম এক্সের এক বার্তায় তিনি লেখেন, বর্তমানে দেশের অভিবাসন পরিসংখ্যান খুব বেশি। আজ থেকে আমরা অভিবাসন নিয়ে নতুন নীতি গ্রহণ করছি। যার ফলে শুধুমাত্র যুক্তরাজ্যই লাভবান হবে।

নতুন অভিবাসন নীতিতে ব্রিটেনে থাকা বিদেশী শিক্ষার্থীদের পরিবারের সদস্যদের দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। তবে যাদের স্নাতকোত্তর গবেষণা ডিগ্রি আছে এবং ন্যূনতম আয় ৩৮ হাজার ৭০০ পাউন্ড—তারা এই নীতির আওতায় পড়বে না বলে জানিয়েছে দেশটির প্রশাসন।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লিভারলি পার্লামেন্টের এক বক্তৃতায় বলেন, আমরা যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের জন্য কল্যাণকর অভিবাসন নীতি আমরা গ্রহণ করব।

এছাড়া যেসব কোম্পানি তাদের বর্তমান বেতন কাঠামোর চেয়ে ২০ শতাংশ কম বেতন দিচ্ছে, তারা যেন অভিবাসী শ্রমিকদের আনতে না পারে, সে ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা বলা হচ্ছে। পাশাপাশি বিভিন্ন দেশ থেকে যারা যুক্তরাজ্যে পড়তে আসেন, সেই সব শিক্ষার্থীরা যেন ইচ্ছা করলেই তাদের পরিবারের সদস্যদের দেশটিতে আনতে না পারেন, সে ব্যাপারেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

এসব পরিবর্তন আগামী বসন্ত থেকে কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com