শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন

মেসির কারণে দল ছাড়তে চান স্কালোনি!

লিওনেল স্কালোনি এবং লিওনেল মেসি। দুই লিওর যুগলবন্দী যেন আর্জেন্টিনার ফুটবলে বয়ে এনেছিল সৌভাগ্যের প্রতীক। ২০১৮ বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর স্কালোনির হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল আর্জেন্টাইন ফুটবলের দায়িত্ব। ৪২ বছরের স্কালোনি দল সাজালেন সম্পূর্ণ নতুন এক ভঙ্গিতে। শুরুতে না থাকলেও পরে এসে তাতে যুক্ত হন লিওনেল মেসি।

মেসি-স্কালোনি জুটি এরপর আর্জেন্টিনাকে নিয়ে গিয়েছে অনন্য এক উচ্চতায়। ফুটবল ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি অপরাজিত থাকার রেকর্ড করেছে আলবিসেলেস্তেরা। ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটিয়েছে কোপা আমেরিকা জয়ের মাধ্যমে। আর ২০২২ সালে তো বিশ্বকাপই ঘরে তুলেছে তারা। বিমান থেকে হাসিমুখে দু’জন মিলে ট্রফি ধরে নেমেছিলেন আর্জেন্টিনার মাটিতে। কিন্তু তাদের সেই সুসময় নাকি বেশ কিছুদিন আগেই পার করে এসেছিলেন। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য অ্যাথলেটিক জানিয়েছে, সম্প্র্রতি স্কালোনির দল ছাড়তে চাওয়ার পেছনে নাকি মেসিরই দায় বেশি। দু’জনের মাঝে নাকি অনেকটা দিন ধরেই মন কষাকষি চলছে। যা চূড়ান্ত রূপ নিয়েছে ব্রাজিল ম্যাচ কেন্দ্র করে। ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচে আর্জেন্টিনা থেকে আগত দর্শকদের ওপর চড়াও হয়েছিল ব্রাজিলের পুলিশ। এর প্রতিবাদে পুরো দল নিয়ে টানেলে ফিরে যান লিওনেল মেসি। এই সময় একক সিদ্ধান্তেই দল নিয়ে ড্রেসিংরুমে চলে যান মেসি। বিষয়টিকে ভালোভাবে নেননি কোচ স্কালোনি।

আবার সেই ম্যাচের পর স্কালোনি যখন নিজের সিদ্ধান্তের কথা ড্রেসিংরুমে জানিয়েছেন, তখন বিষয়টি ভালো লাগেনি মেসির। বুয়েন্স আয়ার্স ভিত্তিক রেডিও ১০ স্কালোনির সংবাদ সম্মেলেনের পরদিন জানায়, দলের সঙ্গে আলোচনা না করে ভবিষ্যৎ নিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে কথা বলা পছন্দ করেননি মেসি। এই নিয়ে এলএমটেনের মাঝেও রয়েছে ক্ষোভ।

এদিকে যতই দিন যাচ্ছে, ততই চওড়া হচ্ছে স্কালোনির জাতীয় দল ছাড়ার গুঞ্জন। বলা হচ্ছে, স্কালোনি নাকি ক্লাবের দিকেই মনোযোগ দিতে চান। আর তাই এই পদক্ষেপ কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে ইউরোপিয়ান ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। মুন্ডো আলবিসেলেস্তে জানিয়েছে, স্প্যানিশ ক্লাবটির পক্ষ থেকে নাকি আর্জেন্টাইন কোচের কাছে প্রাথমিক চুক্তির একটি নমুনাও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। স্কালোনির জার্মান এজেন্সি সেটা এরই মাঝে গ্রহণ করেছে।

এই গণমাধ্যমের দাবি, রিয়ালে বর্তমান কোচ কার্লো অ্যানচেলত্তির অবস্থান এখনো নিশ্চিত না। তবে এর বিপরীত কথাও শোনা যাচ্ছে। অনেকেরই দাবি, বর্তমান কোচের কাছে তার পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানতে চেয়েছে স্প্যানিশ ক্লাবটি। অ্যানচেলত্তি সত্যিই ২০২৪ সালে ব্রাজিলের কোচিং নিতে আগ্রহী কিনা তা নিশ্চিত হতে চান রিয়াল মাদ্রিদের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ।

সব মিলিয়ে দ্য অ্যাথলেটিক তাদের আঙুল তুলেছে মেসির দিকে। আর আর্জেন্টিনার গণমাধ্যমগুলো দোষ দিচ্ছে দেশটির ফুটবল ফেডারেশন সভাপতি ক্লদিও তাপিয়াকে। আবার এর পেছনে রাজনৈতিক কারণও আছে বলে জানিয়েছেন অনেকেই। যে তালিকায় আছে দ্য অ্যাথলেটিক নিজেও। শেষ পর্যন্ত কী হবে স্কালোনি আর আর্জেন্টিনার ভাগ্যে, তা জানতে অপেক্ষাটা নিশ্চিতভাবেই বাড়বে আর্জেন্টাইন ভক্তদের।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com