শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৯:৩১ পূর্বাহ্ন

চিপ উৎপাদন কারখানা আলাদা করছে না ইন্টেল

বিনিয়োগকারীদের চাপ থাকা সত্ত্বেও কোম্পানির চিপ ফাউন্ড্রি ব্যবসা আলাদা করার কোনো ইচ্ছা আপাতত নেই ইন্টেলের। সম্প্রতি মার্কিন এ কোম্পানির প্রধান নির্বাহী প্যাট গেলসিঙ্গার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছেন। খবর রয়টার্স।

সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে প্যাট গেলসিঙ্গার চিপ ডিজাইন ও উৎপাদন এক ছাদের নিচে রাখাকেই সবচেয়ে কার্যকর পথ হিসেবে দেখছেন বলে জানান।  কয়েক বছর আগে ১০ ন্যানোমিটারের চিপ প্রযুক্তি নিয়ে ইন্টেল বাধার সম্মুখীন হয়। ফলে কিছু বিনিয়োগকারী জানায়, কোম্পানিটির উচিত চিপ তৈরির জন্য একটি স্বতন্ত্র ইউনিট তৈরি করা এবং শুধু ডিজাইনে মনোনিবেশ করা। তবে ইন্টেল অভ্যন্তরীণ চিপ উৎপাদন ধরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এমনকি এসব কারখানা ব্যবহার করে চুক্তিভিত্তিক কাজ করার জন্য ইন্টেল ফাউন্ড্রি সার্ভিসেস (আইএফএস) গঠন করেছে।

২০২১ সালে ইন্টেলের সিইও হিসেবে দায়িত্ব নেন প্যাট গেলসিঙ্গার। তখন তিনি জানান, ইন্টেল তার পথ হারিয়েছে। গেলসিঙ্গার ইন্টেলে ফিরে আসার পর চিপ নির্মাণে বিনিয়োগ ও পুনর্গঠনের লক্ষ্য নিয়েছিলেন। তার নেতৃত্বে প্রযুক্তি কোম্পানিটি বড় পরিবর্তন দেখতে পেয়েছে। বর্তমানে ইন্টেল চিপ উৎপাদন ও গবেষণা নিয়ে ভালোভাবে কাজ করছে।

ইন্টেলের নতুন সিইও হিসেবে গেলসিঙ্গার এটি স্পষ্ট করেন, কোম্পানিটি চিপ তৈরির ক্ষেত্রে সমন্বিত ডিজাইনার ও প্রস্তুতকারক হিসেবে বাজারে কাজ করবে। তিরিয়াস রিসার্চের প্রধান জিম ম্যাকগ্রেগর ইন্টেলের উৎপাদন সমস্যার দীর্ঘমেয়াদি সমাধানের কথা জানান। এ সমস্যাগুলোর কারণে সাম্প্রতিক বছরগুলোয় চিপ উৎপাদন বিলম্বিত হয়েছে।

কয়েক বছর আগের এক প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, ইন্টেলের কিছু বিনিয়োগকারী বিদ্যমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাহসী পদক্ষেপ নেয়ার জন্য জোরালো আহ্বান জানিয়েছিলেন। এর অর্থ হলো ইন্টেলকে গত এক দশকের মধ্যে নেয়া কিছু অধিগ্রহণ থেকে সরে আসতে হবে। এমনকি তার ফ্যাব্রিকেশন প্লান্ট বা কারখানাও বন্ধ করে দিতে হবে। তবে ইন্টেলের সিইও বিকল্প সমাধানের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।

নতুন সিইও হিসেবে প্যাট দৃঢ়ভাবে জানিয়েছিলেন ইন্টেল একটি ইন্টিগ্রেটেড ডিভাইস ম্যানুফ্যাকচারার (আইডিএম) হিসেবে তাদের উৎপাদন কার্যক্রম চালিয়ে যাবে। মূলত ইন্টিগ্রেটেড ডিভাইস ম্যানুফ্যাকচারার (আইডিএম) হচ্ছে যখন একটি সেমিকন্ডাক্টর কোম্পানি ইন্টিগ্রেটেড সার্কিট (আইসি), পণ্য ডিজাইন, উৎপাদন ও বিক্রয় সব কাজ একত্রে করে থাকে। তবে এক্ষেত্রে ইন্টেল টিএসএমসির মতো বাহ্যিক কারখানাগুলোয় নির্দিষ্ট পণ্য আউটসোর্স করতে পারে। এ পদ্ধতির বিষয়ে ইন্টেলের কিছু শেয়ারহোল্ডারের আপত্তি থাকলেও ম্যাকগ্রেগরের বিশ্বাস এটি ইন্টেলের জন্য সেরা বিকল্প।

কারখানা বিক্রির পরিবর্তে ম্যাকগ্রেগর আরো কৌশলগত পদক্ষেপ নিতে চান। ইন্টেল এরই মধ্যে কারখানাগুলোয় প্রচুর পরিমাণে বিনিয়োগ করেছে। পাশাপাশি নতুন অনেক কারখানাও তৈরি করছে। এক্ষেত্রে তারা আবুধাবি সরকার নিয়ন্ত্রিত অ্যাডভান্সড টেকনোলজি ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি (এটিআইসি) থেকে গ্লোবাল ফাউন্ড্রিজ কিনে উৎপাদন সক্ষমতা বাড়াতে পারে বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের।

গ্লোবাল ফাউন্ড্রিজ এরই মধ্যে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম ফাউন্ড্রি। যদিও এটি স্যামসাং বা টিএসএমসির চেয়ে কিছু পিছিয়ে রয়েছে। তবে গ্লোবাল ফাউন্ড্রিজের সঙ্গে কাজ করলে ইন্টেল একটি অভিজ্ঞ ম্যানেজমেন্ট টিম পেতে পারে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। প্যাট গেলসিঙ্গার সম্প্রতি জানান, বর্তমানে ইন্টেলের কোনো চিপ কারখানা আলাদা করার পরিকল্পনা নেই। তিনি আরো জানান, ইন্টেল তার চিপ ফাউন্ড্রি ব্যবসা বন্ধ করছে না।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com