সোমবার, ১৫ Jul ২০২৪, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
ভারতে উপনির্বাচনে ‘ইন্ডিয়া’ জোটের জয়জয়কার সীমান্ত থেকে দেশের অভ্যন্তরে ১০ মাইল বিজিবির সম্পত্তি ঘোষণাসহ ৪ পরামর্শ হাইকোর্টের রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর বিষয়ে মিয়ানমার ইতিবাচক সময় পেলে ফুটবল খেলা দেখি : প্রধানমন্ত্রী কোটা ইস্যুতে কাউকে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে দেবে না ছাত্রলীগ রোববার গণপদযাত্রা, রাষ্ট্রপতি বরাবর স্মারকলিপি দেবে কোটা আন্দোলনকারীরা কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করবেন না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েলে আবারও ৫০০ পাউন্ডের বোমা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী কোটা আন্দোলনকারীদের জন্য আদালতের দরজা সবসময় খোলা : প্রধান বিচারপতি

এবার ‘বেকারত্বে’ চোখ বিজেপি-কংগ্রেসের

ভারতের বড় দুই রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ও ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস। দল দু’টি এরইমধ্যে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করে ফেলেছে। লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, এবারের ইশতেহারে দুই দলই ‘বেকারত্বকে’ বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে।

বিজেপি–কংগ্রেসের ইশতেহার নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। এসব সংবাদমাধ্যমের তথ্যমতে, বিজেপি তার ইশতেহারে বলেছে, অবকাঠামো, বিমান চলাচল, রেলপথ, বৈদ্যুতিক যানবাহন, পরিবেশবান্ধব জ্বালানি, সেমিকন্ডাক্টর, ফার্মাসিউটিক্যালস ইত্যাদি খাতে কর্মসংস্থান সৃষ্টির ওপর মনোযোগ দিয়েছে মোদি সরকার। ভারতের যুবকেরা কল্পনাও করেনি যে তাদের সামনে এত সুযোগ আসবে।

অন্যদিকে কংগ্রেস বলেছে, ক্ষমতায় গেলে ৩০ লাখ সরকারি শূন্যপদে চাকরির ব্যবস্থা করবে কংগ্রেস।

কেন দুই দলই বেকারত্বকে গুরুত্ব দিয়ে ইশতেহার সাজালো তার সুলুক সন্ধান করা যেতে পারে। বিশেষ করে বিজেপি, যে দলের নেতাকর্মীরা ‘হিন্দুত্ববাদ’কে সব সময়ই নির্বাচনী বৈতরণি পার হাওয়ার একমাত্র হাতিয়ার মনে করে, তারাও যখন ধর্মীয় রাজনীতির বদলে বেকারত্বকে তোয়াজ করে ইশতেহার প্রকাশ করে, তখন তা বিস্ময়কর ঘটনাই বটে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com