নরসিংদীতে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ী নিহত

নরসিংদীতে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে ব্যবসায়ী নিহত

0

নিজস্ব প্রতিবেদক,  নগরকন্ঠ.কম : নরসিংদীতে অপু দাস (৩৪) নামে এক ভিডিও প্রগ্রাম ব্যবসায়ীকে প্রকাশ্য দিবালোকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে নরসিংদী বাজারসংলগ্ন হাজীপুর স্টিল ব্রিজ এলাকায় এ হত্যার ঘটনা ঘটে। এসময় আহত হয়েছেন আরো তিনজন। নিহত অপু দাস হাজীপুর এলাকার মৃত অনিল দাসের ছেলে ও শহরের ভিডিও প্রগ্রাম ব্যবসায়ী।

নিহতের পরিবার, পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, হাজীপুর এলাকার সাউন্ডবক্স ব্যবসায়ী মানিকের সঙ্গে শহরের দত্তপাড়া এলাকার কতিপয় যুবকের বিরোধ চলছিল। পূর্ব এই বিরোধের জের ধরে মানিকের ওপর হামলার উদ্দেশ্যে দুপুরে শহরের দত্তপাড়া মহল্লা থেকে ৫/৬ জন সন্ত্রাসী ইজিবাইকে করে হাজীপুরে যায়। এসময় তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে সাউন্ডবক্স ব্যবসায়ী মানিক দৌড়ে হাজীপুর এলাকার ভিডিও প্রগ্রাম ব্যবসায়ী অপু দাসের বাড়ির ভেতর দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে সন্ত্রাসীরা ওই বাড়ির ভেতর গিয়ে মানিককে খোঁজ করতে থাকে। এসময় অপু দাসের ছোট ভাই শিবু দাস তাদের পরিচয় জানতে চায় এবং বাড়ির ভেতরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসীরা শিবু দাসকে মারধর করে আহত করে। খবর পেয়ে শিবুর বড় ভাই অপু দাস ছুটে এসে শিবুকে মারধরের প্রতিবাদ জানালে সন্ত্রাসীরা তাকে ছুরিকাঘাত করে। এসময় অপুকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয়েছেন আল আমিন (৪৫) ও দিবাকর দাস (৪০) নামে আরও দুজন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অপু দাসকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকি তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় পুলিশ নুরুল ইসলাম নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। নুরুল ইসলাম শহরের দত্তপাড়া এলাকার আবদুর রহিমের ছেলে এবং স্থানীয় পৌর কমিশনার রিপন সরকারের ঘনিষ্ঠজন বলে স্থানীয়রা জানান।

নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যার ঘটনা ঘটতে পারে। আমরা তদন্ত করছি। এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে নুরুল ইসলাম নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে গত দেড় মাস আগে কারাগার থেকে জামিনে বের হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে একাধিক মামলা রয়েছে।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন