বিদেশফেরত ২১৯ বাংলাদেশি কারাগারে

বিদেশফেরত ২১৯ বাংলাদেশি কারাগারে

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : বিদেশফেরত ২১৯ বাংলাদেশিকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রোববার (২৩ আগস্ট) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

তুরাগ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সফিউল্লাহ তাদের আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

আবেদনে বলা হয়, কুয়েতে ১৪১ জন, কাতারে ৩৯ জন এবং বাহরাইনে ৩৯ জন, মোট ২১৯ জন প্রবাসী বাংলাদেশি বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের জন্য সেসব দেশের কারাগারে বন্দি ছিলেন। করোনাভাইরাস মহামারির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সাজা মওকুফ করে তাদের বাংলাদেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। তারা বিদেশে অপরাধ করে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেছে। জনস্বার্থে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন।

আবেদনে আরও বলা হয়, তারা কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে থাকাকালীন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী মিথ্যা তথ্য প্রচার এবং বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের পরিকল্পনা করেছে। পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে সুনিদিষ্ট তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া বিদেশফেরতদের নাম-ঠিকানাও যাচাই-বাছাই করা হয়নি। এ অবস্থায় তাদের কারাগারে আটক রাখার কথা বলা হয়। জামিন পেলে তাদের পলাতক হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনে তাদের পর্যায়ক্রমে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

আসামিদের পক্ষে তাদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন।

ঢাকা মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু আসামিদের জামিনের বিরোধিতা করেন। তিনি বলেন, বিদেশফেরত ২১৯ জনই বিভিন্ন অপরাধের জন্য বিভিন্ন দেশের কারাগারে বন্দি ছিলেন। এরা দেশে মুক্ত হলে বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়বে। এতে করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটবে। তারা সমাজ তথা রাষ্ট্রের জন্য হুমকি সৃষ্টি করবে।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন