মা, মেয়ের সঙ্গে একই ব্যক্তির প্রেম; প্রেমিকের হাতেই প্রাণ গেল তরুণীর

মা, মেয়ের সঙ্গে একই ব্যক্তির প্রেম; প্রেমিকের হাতেই প্রাণ গেল তরুণীর

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : ভারতের উত্তরপ্রদেশের বেরিলি জেলায় ঘটেছে চাঞ্চল্যকর ঘটনা। মা ও তার প্রেমিকের হাতেই প্রাণ হারালেন ১৯ বছরের তরুণীর। তার অপরাধ সে-ও ভালোবাসত ওই একই পুরুষকে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার। তবে আজ ঘটনা সবার সামনে আসে। পুলিশ দুই আসামিকে গ্রেপ্তারও করেছে।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, নিহত কিশোরীর নাম উষ্মা। বৃহস্পতিবার বেরিলির সুভাষনগর থানা পুলিশের কাছে তাদের বাড়িতে তিনজন অজ্ঞাতপরিচর আততায়ীর হামলার অভিযোগ করেছিল উষ্মার পরিবার। সেই হামলায় ছুরির আঘাতে গুরুতর জখম হয়েছিলেন তার মা মুকেশাও। তাদের পরিবার আরো জানিয়েছিল, ঘটনার সময় অন্য সকলে ঘুমিয়ে ছিল। মুকেশার চিৎকারেই সবার ঘুম ভেঙেছিল। তবে ততক্ষণে হামলাকারীরা পালিয়ে গেছে।

এই ঘটনার তদন্ত করতে নেমেই পুলিশ সন্ধান পেয়েছিল কওশর নামে স্থানীয় এক তরুণের। কওশরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল উষ্মার। আর কওশরকে ধরে চাপ দিতেই আসল গল্পটা জানতে পেরেছিল পুলিশ। জানতে পেরেছিল মুকেশার সঙ্গেও কওশরের অবৈধ সম্পর্কের কথা। আর এই জোড়া সম্পর্ক নিয়ে কওসরের বাড়িতে অশান্তি এবং সেইসঙ্গে উষ্মার বিয়ের জন্য চাপ দেওয়ার কথা।

স্থানীয় পুলিশ সুপার শৈলেশ পান্ডে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ভোরে উষ্মাদের বাড়িতে কোনো আততায়ী নয়, এসেছিল কওশর। সে উষ্মাকে অন্য ঘরে নিয়ে যায়। বিশ্বাস করে উষ্মা সেই ঘরে যেতেই সেখানে লুকিয়ে থাকা মুকেশা তার গলায় একটি দোপাট্টা জড়িয়ে ধরেছিল। কওশর ও মুকেশা মিলেই তাকে হত্যা করে। তারপর গল্প সাজানোর জন্যই মুকেশা কওশরকে একটি ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কওশর চলে যাওয়ার পরই, মুকেশা বাড়ির আর সবাইকে ডেকেছিল।

সূত্র: এশিয়াননেট নিউজ।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন