গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে নরওয়ে থেকে রাশিয়ান কূটনীতিক বহিষ্কার

গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে নরওয়ে থেকে রাশিয়ান কূটনীতিক বহিষ্কার

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : গত ১৯ আগস্ট বুধবার নরওয়েজিয়ান সরকার গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে রাশিয়ান দূতাবাসের একজন কূটনীতিককে বহিষ্কারের আদেশ দিয়েছে। একজন নরওয়েজিয়ানের সঙ্গে গোপনে বৈঠক করার সময় রাশিয়ান এ কূটনীতিককে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তাঁকে নরওয়ে থেকে বহিষ্কারের আদেশ দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে নরওয়ের পররাষ্ট্র দপ্তর।

‘আমরা রাশিয়ান রাষ্ট্রদূতকে অবহিত করেছি যে, তাঁর দূতাবাসে কর্মরত একজন কূটনীতিককে নরওয়েতে অনাকাঙ্ক্ষিত হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে এবং তাঁকে অনতিবিলম্বে নরওয়ে ত্যাগ করতে বলা হয়েছে’ বলে জানান নরওয়েজিয়ান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগবিষয়ক পরিচালক ট্রুড ম্যাসাইড।

যেহেতু বহিষ্কৃত রুশ একজন কূটনীতিক, সে কারণে তাঁকে নরওয়ের আদালতে বিচারের সম্মুখীন করা যাবে না। তবে নরওয়েজিয়ান নাগরিককে রাষ্ট্রের গোপন তথ্য অন্য একটি রাষ্ট্রের কাছে হস্তান্তর করার অভিযোগে বিচারের সম্মুখীন করা হবে এবং এরই মধ্যে তাঁর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

রাশিয়ান কূটনীতিক ও নরওয়েজিয়ান নাগরিক যখন অসলোর একটি রেস্তোরায় বৈঠক করছিলেন, তখন নরওয়ে পুলিশের গোয়েন্দা সংস্থা গোপনে তাঁদের অনুসরণ করেছিল। সেখানে গ্রেপ্তারকৃত নরওয়েজিয়ান নাগরিক, যাঁর বয়স ৫০ বছর, রাশিয়ান কূটনীতিকের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণ করেছেন বলে স্বীকার করলেও কোনো ধরনের অপরাধ করেছেন বলে তিনি স্বীকার করেননি।

তাৎক্ষণিকভাবে রুশ ফেডারেশনের সরকার তার দূতাবাসের মাধ্যমে নরওয়ের ‘কূটনীতিক বহিষ্কারের’ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে। দূতাবাসের লিখিত এক বিবৃতিতে বলা হয় যে, ‘সম্পূর্ণ বিনা কারণে একজন নরওয়েজিয়ান নাগরিকের সঙ্গে রাশিয়ার বাণিজ্যিক প্রতিনিধিদলের উপপ্রধানের বৈঠককালে নরওয়ের নিরাপত্তা বাহিনী তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন