লাইসেন্স নেই: বন্ধ করে দেয়া হলো হবিগঞ্জের খোয়াই হাসপাতাল

লাইসেন্স নেই: বন্ধ করে দেয়া হলো হবিগঞ্জের খোয়াই হাসপাতাল

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : লাইসেন্স, ডিউটি চিকিৎসক, নার্স ও মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট না থাকায় হবিগঞ্জ শহরের সবুজবাগ এলাকায় খোয়াই হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেড বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সামছুদ্দিন মো. রেজা অভিযান চালিয়ে হাসপাতালটি বন্ধের নির্দেশনা দেন। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানের মালিক গিয়াস উদ্দিনকে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সামছুদ্দিন মো. রেজা জানান, খোয়াই হাসপাতালে ডিউটি চিকিৎসক, নার্স ও মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট উপস্থিত ছিলেন না। লাইসেন্সহীন এ হাসপাতালে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সেবা দেওয়া হতো। এখানে আগে ব্যবহৃত চিকিৎসা সামগ্রীও পাওয়া গেছে। এসব কারণে হাসপাতালটি বন্ধের নির্দেশনা এবং এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে প্রতিষ্ঠান মালিককে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

হবিগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ২০০৬ সাল থেকে ১৪ বছর ধরে খোয়াই হাসপাতাল চলছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ লাইসেন্সের জন্য আবেদনই করেনি।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, হবিগঞ্জের নয় উপজেলায় লাইসেন্সবিহীন ৩৫টি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার রয়েছে। যার ১৬টিই জেলা শহরে। অন্যগুলোর মধ্যে শায়েস্তাগঞ্জ, লাখাই, আজমিরীগঞ্জ, চুনারুঘাটে একটি করে, বাহুবলে দুইটি, নবীগঞ্জে দুইটি, মাধবপুরে আটটি এবং বানিয়াচং উপজেলায় তিনটি করে রয়েছে।
এগুলোর মধ্যে লাইসেন্স পাওয়ার জন্য আবেদনই করেনি আটটি। বাকি ২৭টি প্রতিষ্ঠান অনলাইনে আবেদন জমা দিলেও এখনও পর্যন্ত তারা সরকারি চালানের টাকা জমা দেয়নি।
নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন