আর ঘানি টানতে হবে না আজিজার-দম্পতির

আর ঘানি টানতে হবে না আজিজার-দম্পতির

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : জনপ্রিয় অনলাইন নিউজপোর্টাল রাইজিংবিডিডটকমে সংবাদ প্রকাশের পর গরু উপহার পেলেন ৩০ বছর ধরে নিজের ঘাড়ে ঘানি টানা নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা গ্রামের আজিজার রহমান দম্পতি। এখন আর তাদের নিজেদের ঘানি টানতে হবে না। এই গরু দিয়ে ঘানি ঘোরাবেন তারা। এতে বেজায় খুশি ওই বৃদ্ধ দম্পতি।

বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে জলঢাকা উপজেলা পরিষদ চত্বরে জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী গরুটি তাদের হাতে তুলে দেন। জলঢাকা উপজেলা প্রশাসন ও সেলফ-হেলপ অ্যান্ড রিহেবিলেটেশন প্রোগ্রামের (শার্প) যৌথ চেষ্টায় গরুটি সংগ্রহ করা সম্ভব হয়েছে। অনুষ্ঠানে জলঢাকা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ সরকার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহবুর হাসান, শার্পের প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর করিম উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গরু পেয়ে আবেগাপ্লুত আজিজার রহমান (৭৫) বলেন, ‘৩০ বছর ধরি মুই (আমি) আর মোর বউ নিজের ঘাড়োত (ঘাড়ে) ঘানি টানি আসিছি। আইজ (আজ) গরু পানু, এলা (এখন) গরু দিয়া ঘানি টানিমো। শ্যাষ (শেষ) বয়সে একনা (একটু) আরাম পামো হামরা (আমরা)।’

শার্পের প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর করিম উদ্দিন বলেন, ‘ইউএনও মহোদয় আমাদের একটি গরু দেওয়ার কথা বলেন। আমি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে দিনাজপুরের কাহারোল হাট হতে ৬০ হাজার টাকায় বলদ গরুটি কিনে নিয়ে আসি।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহবুর হাসান বলেন, ‘ঘানি টানার প্রতিবেদন পড়ে জেলা প্রশাসক স্যার আমাকে খোঁজখবর নিতে বলেন। আমি রাইজিংবিডির জেলা প্রতিনিধির সহায়তায় তাদের খোঁজখবর নিয়ে একটি গরুর ব্যবস্থা করেছি।’

জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘সংবাদ মাধ্যম আমাদের তৃতীয় চোখ, রাইজিংবিডি তা আবারও প্রমাণ করে দিলো। ৩০ বছর ধরে ওই দম্পতি ঘানি টানছেন, অথচ কেউ খেয়ালই করেননি তাদের কষ্ট। প্রতিবেদন পড়ে মনটা খারাপ হয়ে যায়। তাদের হাতে গরু তুলে দিতে পেরে ভালো লাগছে।’

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন