নাটোরে আদালত চত্বরে ধর্ষকের সঙ্গে অভিযোগকারীর বিয়ে সম্পন্ন

নাটোরে আদালত চত্বরে ধর্ষকের সঙ্গে অভিযোগকারীর বিয়ে সম্পন্ন

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : নাটোরে আদালত চত্বরে ধর্ষকের সঙ্গে অভিযোগকারীর বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। বিয়ের পর ধর্ষকের জামিন মঞ্জুর করেছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে নাটোর আদালত চত্বরে বিয়ের কাজ সম্পন্ন হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গুরুদাসপুর উপজেলার মকিমপুর মাঠে ছাগল চরাতে গিয়ে রওশনপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের জমির মন্ডলের মেয়ে সম্পা খাতুনের সঙ্গে পরিচয় হয় একই এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে মানিকের। পরিচয়ের পর বিয়ের কথা বলে সম্পার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে মানিক।

পরবর্তীতে গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে সম্পা খাতুনের বাড়ি যায় মানিক হোসেন। কথাবার্তার এক পর্যায়ে সম্পার মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে মানিক। সেসময় মোবাইলে সম্পার নগ্ন ভিডিও ধারণ করে মানিক। বিষয়টি বুঝতে পেরে বিয়ের জন্য চাপ দেয় সম্পা। তবে কাজী ডেকে আনার কথা বলে পালিয়ে যায় মানিক। পরে নগ্ন ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় সে।

এ ঘটনায় গত ১৯ অক্টোবর সম্পা খাতুন বাদী হয়ে গুরুদাসপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ওই দিনই মানিক হোসেনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) মামলার শুনানীর দিনে আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মঞ্জুরুল ইসলাম মানিক হোসেনের জামিন আবেদনের পাশাপাশি উভয় পরিবার বিয়ে দেওয়ার জন্য সম্মতি প্রকাশ করেছে বলে বিষয়টি আদালতকে জানান।

পরে নাটোর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আব্দুর রহমান সরদার মানিকের সঙ্গে সম্পার বিয়ে সম্পন্ন হলে মানিকের জামিন মঞ্জুর করেন।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন