লাখাই প্রাণিসম্পদ কার্যালয় প্রাঙ্গণে ‘মাজার’ বিড়ম্বনা

লাখাই প্রাণিসম্পদ কার্যালয় প্রাঙ্গণে ‘মাজার’ বিড়ম্বনা

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয় প্রাঙ্গণে ‘কবর’ রয়েছে দাবি করে নিশান টানিয়ে ‘মাজার’ বলে প্রচার চালাচ্ছেন এক যুবক। এ নিয়ে ওই অফিসের লোকজনও বিড়ম্বনায় পড়েছেন।

স্থানীয় লোকজনের দাবি- যুবকটি মানসিক রোগী। কেউ কেউ তাকে পাগলা বলে ডাকছেন। সঠিক করে কেউ তার নাম পরিচয় বলতে পারছেন না। তাকে নাম জিজ্ঞেস করলেই তিনি তেড়ে আসেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, যুবকটি কিছু জায়গাজুড়ে কয়েকটি নিশান টানিয়ে রেখেছেন এবং নিয়মিত সেখানে মোমবাতি জ্বালিয়ে অবস্থান করছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা পরিবেশকর্মী ডা. বাহার উদ্দিন বলেন- লাখাই উপজেলা পরিষদের ভেতরেই প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয়। পার্শ্ববর্তী কাটিহারা গ্রামের এই যুবকটি প্রায় পাঁচ বছর আগে এখানে কবরের আকৃতি গড়ে চারপাশে বিভিন্ন রঙের নিশান টানিয়ে রেখেছেন। তিনি সেখানে নিয়মিত মোমবাতি জ্বালাচ্ছেন। দপ্তরের কর্মকর্তাদের নিষেধ শুনছেন না।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ে কর্মরতরা জানান, এখানে কখনও কোন ব্যক্তির কবর ছিলো না। যুবকটি মিথ্যা দাবি নিয়ে সেখানে মাজার বানিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে। কার্যালয়ের গেট বন্ধ করে রাখলেও দেয়াল টপকে ভেতরে ঢুকে যাচ্ছে। তার এসব আচরণে দাপ্তরিক কর্মকান্ডে ব্যাঘাত ঘটছে।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আবু হানিফ বলেন, আমি স্থানীয়দের সাথে কথা বলেছি। তারা জানিয়েছেন এখানে কারো কবর নেই। অথচ সরকারি দপ্তরের ভেতর ওই যুবক জোরপূর্বক মাজার স্থাপন করে সমস্যার সৃষ্টি করেছেন। প্রবেশপথ বন্ধ রাখলেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে গেটে আঘাত করতে থাকেন।

তিনি বলেন, এ ব্যাপারে উপজেলা সমন্বয় কমিটির সভায় বিষয়টি উত্থাপন করেছি। এখনো তার সঠিক পরিচয় পাইনি। আমরা তাকে পুলিশে দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এ ব্যাপারে লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুসিকান্ত হাজং বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। পরিদর্শন শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন