পশ্চিমবঙ্গের বামপন্থী নেতাদের বিজেপিতে যাওয়ার হিড়িক!

পশ্চিমবঙ্গের বামপন্থী নেতাদের বিজেপিতে যাওয়ার হিড়িক!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতির রং ক্রমেই বদলে যাচ্ছে। এবার বিজেপিতে যোগ দিলেন রাজ্যের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বামপন্থী নেতা। আজ পশ্চিমবঙ্গের হলদিয়া জেলায় এক দলবদল অনুষ্ঠানে ২২ জন বামপন্থী নেতা ভারতীয় জনতা পার্টিতে (বিজেপি) যোগদান করেন। এদিনের দলবদলে রাজ্যের কয়েকটি বামপন্থী দলের বেশ গুরুত্বপূর্ণ নেতারা বিজেপিতে নাম লেখান।

বামপন্থীদের একদম বিপরীত মেরুর রাজনৈতিক শক্তি বলে বিবেচিত বিজেপি, তাই বিজেপিতে যোগদানের এমন ঘটনা বেশ আশ্চর্যজনক। বামপন্থী মতাদর্শের পতাকা ত্যাগ করে দলত্যাগের এমন ঘটনা আলোচনার জন্ম দিয়েছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, এর মধ্য দিয়ে বোঝা যায় বামফ্রন্টের শাসনের সময়ে তাদের আদর্শিক অবস্থান দুর্বল ছিল। জেলাস্তরের নেতৃত্বস্থানীয়দের দল বদলের মধ্য দিয়ে সাংগঠনিক শক্তি ক্রামগত অবনতি হচ্ছে, এমনটাই প্রমাণিত হয় বলে মনে করা হচ্ছে। এদিন রাজ্যের সাবেক শাসক ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদি)-সিপিআইএমের জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর প্রাক্তন সদস্য শ্যামল মাইতি, এরিয়া কমিটির সদস্য অর্জুন মণ্ডলর সঙ্গে রেভল্যুশনারি স্যোশালিস্ট পার্টির (আরএসপি) রাজ্য কমিটির নেতা অশ্বিনী জানা বিজেপিতে যোগ দেন। তাদের সঙ্গে আরও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নেতাও যোগ দেন বিজেপিতে। এর মধ্য দিয়ে আগামী বিধানসভায় বিজেপি আঞ্চলিক স্তরে সংগঠন গুছিয়ে নেওয়ার পথে এগিয়ে গেল বলেই মনে করা হচ্ছে।

গত দু দিন আগেই কলকাতা কর্পোরেশনের ১০২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রিংকু নস্কর সিপিআইএম ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। এর রেশ কাটতে না কাটতেই আজ আবারও দলে ব্যাপক ভাঙন ধরালো বিজেপি। কিন্তু বামপন্থীদের বিজেপি হওয়ার এই প্রক্রিয়া কিন্তু সম্প্রতি শুরু হয়নি। বিগত লোকসভা ভোটের আগে রাজ্য সিপিআইএমের গুরুত্বপূর্ণ নেতা ও আদিবাসী আন্দোলনের নেতা খগেন মুর্মু যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে, যিনি এখন লোকসভায় মালদা আসন থেকে নির্বাচিত বিজেপিদলীয় এমপি। আরেক সংখ্যালঘু ও নারী নেত্রী মাহফুজা খানমও বিজেপিতে, যদিও লোকসভায় হেরে গিয়েছেন তিনি। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন