শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৫:০০ অপরাহ্ন

মিরপুরে হেরে হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন ডু-প্লেসিস ও তার স্ত্রী

২০১১ সালে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ার্টারফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে ৪৯ রানে হেরে আসর থেকে বিদায় নিয়েছিলো দক্ষিণ আফ্রিকা। ঐ হারের পর স্ত্রীসহ হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন দলে থাকা প্রোটিয়াদের সাবেক অধিনায়ক ফাফ ডু-প্লেসিস।
শেষ আটের লড়াইয়ে টস জিতে ব্যাট করতে নামে নিউজিল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংএ ৮ উইকেটে ২২১ রানের বেশি করতে পারেনি কিউইরা। জবাবে ১৭২ রানে অলআউট হয়ে ম্যাচ হারে দক্ষিণ আফ্রিকা।
এমন হারের কারনে মৃত্যুর হুমকি পান ডু-প্লেসিস। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ত্রী ইমারি ভিসেরাসহ হত্যার হুমকি পান ডু-প্লেসিস। সেটি ছিলো ডু-প্লেসিসের ক্যারিয়ারের দশম ম্যাচে। ঐ ম্যাচে ছয় নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে ৪৩ বলে ৩৬ রান করেন তিনি।
ইএসপিএন ক্রিকইনফোর ক্রিকেট মান্থলি-এর প্রতিবেদনে ঐ ম্যাচের স্মৃতি রোমন্থন করে ডু-প্লেসিস বলেন, ‘কোয়ার্টারফাইনালের ম্যাচ হেরে আমি হত্যার হুমকি পেয়েছিলাম। শুধু আমি নই আমার স্ত্রীকেও একই হুমকি দেওয়া হয়। ওমন ভয়ানক হুমকিতে আমার স্ত্রী মুষড়ে পড়েছিলো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন হুমকি পাওয়ার পর অবাকই হয়েছিলাম। তখন বিষয়টিকে ব্যক্তিগতভাবে নেই। কিছু আক্রমণাত্মক কথাও বলা হয়, যা এখন আর মনে করতে চাচ্ছি না।’
হুমকির পর অনেক বেশি সতর্ক হয়ে পড়েন ডু-প্লেসিস। স্ত্রীকেও সর্তক করে দেন তিনি। জীবন অনিরাপদ মনে করতে থাকেন এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান। তিনি বলেন, ‘ওমন ঘটনার পর আমরা নিজেদের অনেকটা গুটিয়ে নেই। অপরিচিত কারো সাথে মেলামেশা করিনি। নিজেদের বিষয়গুলো কারও সাথে শেয়ার করিনি। আমরা নিজেদের অনেকটাই গুটিয়ে নিয়েছিলাম। ক্যাম্প বা অনুশীলন চলাকালীন নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখার চেষ্টা করি আমি। তবে যাই হোক, বড় কোন দুর্ঘটনার শিকার আমাদের হতে হয়নি। আমাদের কোন সমস্যাও হয়নি।’

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com