শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৫:২৯ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড মোকাবেলায় গ্লোবাল কল টু এ্যাকশন গ্রহণে নেতৃত্ব দিল বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড মোকাবেলায় গ্লোবাল কল টু এ্যাকশন গ্রহণে নেতৃত্ব দিল বাংলাদেশ ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথম সর্বোচ্চ নেতা আলী খামেনি ভোট দিয়েছেন শ্লোগান নয়, আন্দোলনের মাধ্যমে মুক্ত করতে হবে খালেদা জিয়াকে: গয়েশ্বর খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে স্ট্যান্টবাজিই বিএনপির বর্তমান উদ্দেশ্য: হানিফ শুরু হচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগ পর্ব ফের গাজায় বিমান হামলা চালাল ইসরায়েল বেতন বাড়ছে ক্রিকেটারদের সখীপুরে উপবৃত্তিবঞ্চিত কয়েক হাজার শিক্ষার্থী ৩ আসনে উপনির্বাচন : যে ১০ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ

চীনের দু’টি অঞ্চলে শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাত ॥ ২ জনের প্রাণহানি

A woman stands outside a restaurant after a 5.0-magnitude earthquake in Qiaojia county, Zhaotong city, in China's southwestern Yunnan province early on May 19, 2020. - Four people were killed and another 23 injured when an earthquake shook southwestern China's Yunnan province, local authorities said on May 19. (Photo by STR / AFP) / China OUT

চীনের উত্তর পশ্চিমাঞ্চল ও দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে পরপর আঘাত হানা দু’টি শক্তিশালী ভূমিকম্পে অন্তত ২ জনের প্রাণহানি হয়েছে।
শনিবার স্থানীয় কর্মকর্তা ও ভূকম্পনবিদরা এ খবর জানান।
সূত্র জানায়, জনপ্রিয় পর্যটন শহর দালির নিকটবর্তী ইউনানে শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৯.৪৮ মিনিটে ৬.১ তীব্রতার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এর পর আরো দ’ুবার ভূকম্পন অনুভূত হয়।
পার্বত্য ওই এলাকায় দ’ুজনের প্রাণহানির বিষয়ে নিশ্চিত খবর পাওয়া গেছে। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, ভূমিকম্পে অন্তত ২২ জন আহত হয়েছে।
এর দুঘন্টা পরেই ১২শ’ কিলোমিটার দূরে দেশটির উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় ঘনবসতি পূর্ণ কিংহাই প্রদেশে ৭.৩ তীব্রতার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এরপর আরো একবার ওই অঞ্চলে ভূকম্পন অনুভূত হয়।
তবে প্রত্যন্ত ওই এলাকা থেকে তাক্ষণিকভাবে ক্ষয়-ক্ষতির কোন খবর পাওয়া যায়নি।
উভয় এলাকাতেই জরুরি সংস্থার সদস্য ও ত্রাণ পাঠানো হয়েছে।
ইউনানের প্রাদেশিক সরকার বলছে, ভূমিকম্পের আঘাতে কিছু ভবন ধসে পড়েছে। অন্য অনেকগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
ওই এলাকা থেকে ২০ হাজারেরও বেশি লোককে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এখানে এক লাখেরও বেশি লোকের বসবাস।
দ্য চায়না আর্থকোয়েক নেটওয়ার্কস সেন্টার (সিইএনসি) ট্ইুটারের মতো ওয়েবোতে জনগণকে ভবনগুলো থেকে দূরে থাকার বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।
কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, বড় ভূমিকম্পের পরও একের পর এক ভূকম্পন অনুভূত হতে পারে।
উল্লেখ্য, চীনের পার্বত্যময় পশ্চিমাঞ্চল ও দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চল ভূমিকম্প প্রবণ এলাকা।
দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের সিচুয়ান প্রদেশে ২০০৮ সালে ৭.৯ তীব্রতার ভূমিকম্পে ৮৭ হাজার লোক প্রাণ হারিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com