শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন

শ্রীলংকার বিপক্ষে কঠিন লড়াইয়ের প্রত্যাশা করছে বাংলাদেশ

শ্রীলংকার বিপক্ষে হোম সিরিজে আধিপত্য ধরে রাখতে সামর্থ্যের সবটুকু উজাড় করে খেলার জন্য সতীর্থ খেলোয়াড়দের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। আগামী রোববার থেকে শুরু হচ্ছে তিন ম্যাচের এই ওয়ানডে সিরিজের আগে এ আহবান জানান তামিম। হোম গ্রাউন্ডে ম্যাচ জয়ের দারুন রেকর্ড রয়েছে বাংলাদেশের। ২০১৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত ১২টি হোম ম্যাচে একটি বাদে সবক’টিতেই জয় পেয়েছে টাইগাররা।
অবশ্য কলম্বোয় ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত ওয়ানডে সিরিজের সবকটি ম্যাচেই পরাজিত হয়েছিল সফরকারী বাংলাদেশ। স্বাগতিক লংকানদের কাছে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইট ওয়াশ হয় টাইগাররা।
সিমিত ওভারের আসন্ন হোম সিরিজকে সামনে রেখে আজ এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন,‘ শ্রীলংকার অধিকাংশ খেলোয়াড়ের সঙ্গে আমাদের খেলার অভিজ্ঞতা আছে। আমরা জানি তারা মানসম্পন্ন একটি দল। আমরা কোন কিছুই সহজভাবে লাভ করতে পারব না। তাদের বিপক্ষে ম্যাচ জিততে হলে আমাদের সেরার চেয়েও বেশী কিছু দিতে হবে।’
পিতৃত্বকালীন ছুটি কাটানোর জন্য নিউজিল্যান্ড সফরে দলের বাইরে থাকলেও লংকানদের বিপক্ষে আসন্ন হোম সিরিজে অল রাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে ফিরে পাচ্ছে টাইগাররা। গত এপ্রিলে শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও অনুপস্থিত ছিলেন দেশ সেরা এই অল রাউন্ডার। টেস্টে অংশ গ্রহনের পরিবর্তে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ারলিগকেই (আইপিএল) বেছে নিয়েছিলেন তিনি।
সাকিব নিজের পছন্দের তিন নম্বরেই ব্যাটিং করতে পারবেন বলে নিশ্চিত করেছেন অধিনায়ক তামিম। ২০১৯ বিশ^কাপে ওয়ান ডাউনের ব্যাটসম্যান হিসেবে দারুন সফল হয়েছিলেন তিনি। ওই সময় আসরের তৃতীয় সর্বোচ্চ ৬০৬ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হন টাইগার অল রাউন্ডার। আসরে সর্বোচ্চ ৬৪৮ রান সংগ্রহ করেছিলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা। তবে সাকিবের সংগ্রহশালায় বাড়তি যোগ হয়েছিল ১১টি উইকেট।
তামিম বলেন, ‘সাকিব তৃতীয় স্থানেই ব্যাট করবেন। বিশ^কাপে ৯ ম্যাচ থেকে সাকিব ৬০০ এর অধিক রান সংগ্রহ করায় তার ব্যাটিংয়ের অবস্থান পরিবর্তনের প্রত্যাশা জোড়ালো হয়েছে। ঘটনাটি আমাদের কাছেও স্মরনীয় হয়ে আছে। কিন্তু সব সময় সেটি সম্ভব হয় না।
আমি চাই সে যেন প্রতিটি ম্যাচেই এমন রান করে। তবে এটি খুবই ্িবরল পারফর্মেন্স। সেটি যদি না ঘটতো তাহলে ভয়ের কিছু থাকতো না। এমতাবস্থায় আমি খুব একটা আতংকিত নই।’
সিরিজের বাকী দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৫ ও ২৮ মে। সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com