বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৩১ অপরাহ্ন

শিমুলিয়া-বাংলাবাজারে যাত্রীদের উভয়মুখী চাপ

ঈদ শেষ হলেও শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের উভয়মুখে যাত্রীদের চাপ রয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে যাত্রীরা ঢাকায় ফিরছেন। যাত্রীরা বিভিন্ন যানবাহনে বাংলাবাজার ঘাটে আসছেন। বাংলাবাজার ঘাট থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি লঞ্চেই ছিল যাত্রীতে ভরপুর। লঞ্চগুলোতে ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নেওয়ার কথা থাকলেও তা মানা হচ্ছে না। প্রতিটি লঞ্চেই নেওয়া হচ্ছে অতিরিক্ত যাত্রী। ফলে উপেক্ষিত রয়েছে স্বাস্থ্যবিধি। অনেককেই মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।

এদিকে ফেরিতে সকাল থেকে যাত্রী ও যানবাহনের চাপ না থাকলেও দুপুরের পর যানবাহনের চাপ শুরু হয়। বাংলাবাজার ছেড়ে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি ফেরিতে যানবাহনের পাশাপাশি বিপুল সংখ্যক যাত্রী ছিল। এদিনও ঢাকা থেকে অনেক যাত্রী দক্ষিণাঞ্চলে ফিরছেন। এদিকে পদ্মায় অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধির ফলে তীব্র স্রোতে ফেরি পারাপারে দ্বিগুন সময় লাগছে। এরুটে স্পিডবোট চলাচল বন্ধ থাকলেও ১৫টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ চলাচল করছে।

বিআইডব্লিউটিএ বাংলাবাজার ঘাট পরিদর্শক আক্তার হোসেন বলেন, সকাল থেকেই লঞ্চে উভয়মুখী যাত্রী চাপ রয়েছে। আমরা প্রতিটি লঞ্চে ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী পারাপার করছি। স্বাস্থ্যবিধি মানতে যাত্রীদের বারবার অনুরোধ করা হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিএ বাংলাবাজার ঘাট ম্যানেজার মো. সালাউদ্দিন বলেন, সকাল থেকে যানবাহন ও যাত্রীদের চাপ না থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে যানবাহন ও যাত্রীদের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে। আমরা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে অ্যাম্বুলেন্স, যাত্রীবাহী গাড়িসহ জরুরি যানবাহন পারাপার করছি। প্রতিটি ফেরিতেই বিপুল সংখ্যক সাধারণ যাত্রী পার হচ্ছে। পদ্মায় পানি বৃদ্ধির ফলে তীব্র স্রোতে ফেরি পারাপারে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com