বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৯ অপরাহ্ন

শিশুর জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে হলে বাবা-মাকে বদলাতে হবে : বিশেষজ্ঞদের অভিমত

রাজধানীতে আয়োজিত এক ওয়েবিনারে সাইবার বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, শিশুর জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করতে হলে আগে বাবা-মাকে বদলাতে হবে।
করোনা (কভিড-১৯) অতিমারীতে বিশ্বজুড়েই ইন্টারনেট নির্ভরতা বহুগুণে বেড়েছে এ কথা উল্লেখ করে তারা বলেন, অনলাইন ক্লাসসহ বিভিন্নভাবে শিশুরা প্রতিনিয়ত ইন্টারনেট জগতে অবাধে বিচরণ করছে। এজন্য ভার্চূয়্যাল জগতে শিশুদের অবাধ বিচরণ কতটা নিরাপদ তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
বিশেষজ্ঞরা  বলেন, ইন্টারনেট তথা প্রযুক্তির নিয়ন্ত্রিত ব্যবহারের ক্ষেত্রে বাবা-মা সচেতন হলে সেটি শিশুর নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহার নিশ্চিত করতে কাজে দেবে। তা না হলে ইন্টারনেট ব্যবহারের নেতিবাচক প্রভাবের কারণে শিশুরা শারীরিক ও মানসিকভাবে ক্ষতির শিকার হতে পারে।
সাইবার নিরাপত্তা সচেতনতা মাসের (ক্যাম) অক্টোবরের আলোচনায় অংশ নিয়ে বিশেষজ্ঞরা এসব কথা বলেছেন।
সাইবার নিরাপত্তা সচেতনতা মাস বিষয়ক জাতীয় কমিটি-২০২১ শনিবার রাতে ‘শিশুর জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট’ শীর্ষক এ ওয়েবিনারের আয়োজন করে। মোবাইল ফোন অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড ও প্রযুক্তি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান সাইবার প্যারাডাইসের পৃষ্ঠপোষকতায় মাসব্যাপী সচেতনতামূলক এ কর্মসূচি চলছে। শনিবার রাতে আয়োজিত ওয়েবিনার অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচার করে ইংরেজি দৈনিক ঢাকা ট্রিবিউন।
ক্যাম জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক ও আইসাকা ঢাকা চ্যাপ্টারের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে এ ওয়েবিনারে যুক্তরাজ্য সরকারের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসে কর্মরত মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. মেহতাব গাজী রহমান, সাইবার নিরাপত্তা প্রকৌশলী মো. মুশফিকুর রহমান ও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিসিএ কার্যালয়ের সাইবার অপরাধ ও নিরাপত্তা বিভাগের উপ-নিয়ন্ত্রক (উপ-সচিব) হাসিনা বেগম বক্তৃতা করেন। সঞ্চালক ছিলেন ক্যাম জাতীয় কমিটির সদস্য কাজী মুস্তাফিজ।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com