বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩১ পূর্বাহ্ন

‘অবিশ্বাস্য’ পারফরম্যান্সে খুশি রোনালদো

ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রত্যাবর্তনের শুরুর দিকে তিনি ছিলেন দুর্দান্ত। গোলের দেখা পেয়েছিলেন ম্যাচের পর ম্যাচ। মাঝে হঠাৎ ছন্দপতন। গোলের দেখা যেন পাচ্ছিলেনই না ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। অবশেষে সেই খরা কাটল।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চার ম্যাচ পর অবশেষে জালের দেখা পেলেন পর্তুগিজ তারকা। জয় পেল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও। শনিবার টটেনহ্যাম হটস্পারের মাঠে ৩-০ গোলে জিতেছে রেড ডেভিলসরা।

ম্যাচের প্রথম গোল পেতে অপেক্ষা করতে হয়ে ৩৯ মিনিট পর্যন্ত। ব্রুনো ফার্নান্দেজের ক্রসে দারুণ এক ভলি করেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। এতেই প্রিমিয়ার লিগে চার ম্যাচ পর গোলের দেখা পান রোনালদো।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে  বুলেট গতির শটে বল জালে জড়িয়েছিলেন রোনালদো। অফসাইডের কারণে সে গোল বাতিল হয়। ৬৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ম্যানইউ। গোলটি করেন এডিনসন কাভানি। ৮৬ মিনিটে তৃতীয় গোলের দেখা পায় ম্যানইউ। কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন বদলি নামা রাশফোর্ড। দারুণ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সফরকারীরা।

জয়ের পর স্কাই স্পোর্টসকে রোনালদো বললেন, দুঃসময়টা পেছনে ফেলার বিশ্বাস তাদের ছিল, ‘অপ্রত্যাশিত ফলাফলের পর আমরা জানতাম যে কঠিন একটি সপ্তাহ আমাদের পেরোতে হয়েছে। দল একটু চাপে ছিল, কিছুটা হতাশ ছিল। তবে আমরা জানতাম, জবাব দিতে পারি আমরা।’

তিনি আরও বলেন, ‘(আজকে) আমরা ভালো খেলেছি, ভালো শুরু করেছি। আমার কাজ অবশ্যই অভিজ্ঞতা দিয়ে, গোল করে, গোল বানিয়ে দিয়ে দলকে সহায়তা করা এবং আজকে তা পেরেছি, তাতে আমি সন্তুষ্ট। দলের দিক থেকে এই পারফরম্যান্স ছিল অবিশ্বাস্য।’

গত ম্যাচে সমালোচনা ধেয়ে এসেছে বানের জলের মতো। তবে দেড় যুগের অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ রোনালদো এসবে বিচলিত ছিলেন না বলেই দাবি করলেন, ‘সব সময় সমালোচনা থাকবে। আমি এগুলো পাত্তা দিই না। কারণ, ১৮ বছর ধরে ফুটবল খেলছি। সুতরাং আমি জানি, এক দিন (মানুষ বলবে) আমরা ভালো খেলেছি। অন্যদিন (তারাই বলবে) আমরা জঘন্য। আমি এগুলো জানি এবং এগুলো মেনেই আমাদের চলতে হবে। কিন্তু সমর্থকেরা যখন প্রশংসা করে ও খুশি থাকে, তখন সব সময় ভালো লাগে। কখনো জীবনটা সে রকম যায়। কখনো আমাদের খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। যে জন্য আমাদের বদলাতে হয় এবং আজ আমরা সেটাই করেছি।’

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com