রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৪০ অপরাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রের ডিয়ারবর্ন সিটির প্রথম মুসলিম মেয়র

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিয়ারবর্ন সিটির মেয়র হিসেবে প্রথম আরব মুসলিম নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলের ভিত্তিতে লেবানিজ বংশোদ্ভূত আমেরিকান মুসলিম আবদুল্লাহ হামুদ মেয়র নির্বাচিত হন।

মিশিগান রেডিওর প্রতিবেদনে জানা যায়, মিশিগানের ১৫ ডিসট্রিক্টের প্রতিনিধি হিসেবে টানা তৃতীয়বারের মতো দায়িত্ব পালন করে গত জানুয়ারিতে হামুদ মেয়র পদপ্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেন। মেয়র নির্বাচনে প্রতিপক্ষ গ্যারি ওরোনচাককে বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করে এক শ বছরের ইতিহাসে তিনি সপ্তম মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হন।

মঙ্গলবার রাতে নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আবদুল্লাহ হামুদ বক্তব্য দেন। বিজয়ী হয়ে হামুদ নিজের বক্তব্যকে তরুণ ছেলে-মেয়েদের মধ্যে যারা বিশ্বাস ও জাতিগত কারণে উপহাসের শিকার হয়েছেন তাদের জন্য উৎসর্গ করেন।

আবদুল্লাহ হামুদ বলেন, ‘ডিয়ারবর্নের মানুষ আওয়াজ তুলেছিল। সিটির নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তারা নেতৃত্বের পরিবর্তন চায়। তারা সিটির নতুন সাহসী নেতৃত্ব চায়। যারা ভেবেছিল যে তাদের নাম অবাঞ্ছিত এবং আমাদের বাবা-মা, আমাদের প্রবীণ ব্যক্তিরা ও অন্য যারা তাদের ভাঙা ইংরেজির জন্য অপমানিত হয়ে আজও টিকে আছেন, তা এটাই প্রমাণ করে যে আপনিও অন্যদের মতোই একজন আমেরিকান।’

আবদুল্লাহ হামুদের বাবা-মা লেবানন থেকে আমেরিকায় পাড়ি জমান। দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের মতে, ‘ডিয়ারবর্ন সিটিতে প্রায় এক লাখ লোক বসবাস করে। জনসংখ্যার দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের এ শহরে সবচেয়ে বেশি আরব আমেরিকান লোক বাস করে। কিন্তু দীর্ঘকাল যাবৎ সিটির বিচ্ছিন্নতাবাদী মেয়র অরভিল হাবার্ড কৃষ্ণাঙ্গ পরিবারগুলোকে শহরের অন্য শ্বেতাঙ্গদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখেন।’

সূত্র : রেডিও মিশিগান

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com