রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৫:২৭ অপরাহ্ন

শরণার্থী সংকটের মাস্টারমাইন্ড পুতিন: পোল্যান্ড

বেলারুশ হয়ে সীমান্তে হাজার হাজার শরণার্থীর জড়ো হওয়ার জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের হাত রয়েছে বলে দাবি পোল্যান্ডের।

বিবিসি জানায়, দেশটির প্রধানমন্ত্রী মারেউতস মোরাউইকি এ ঘটনার ‘মাস্টারমাইন্ড’ বললেন পুতিনকে।

তার মতে, বেলারুশের একনায়ক আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কো মস্কোর ঘনিষ্ঠ মিত্র। পোল্যান্ডের সীমান্তে শরণার্থীর ঢল নামার ঘটনা সেখান থেকেই পরিকল্পিত।

তীব্র শীতের মাঝে বেলারুশ-পোল্যান্ড সীমান্তে কমপক্ষে ২ হাজার শরণার্থী জড়ো হয়েছে।

তবে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞার প্রতিশোধ হিসেবে শরণার্থী পাঠানোর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন লুকাশেঙ্কো।

সোমবার উত্তাল হয়ে ওঠে পোল্যান্ড সীমান্ত। বেড়া কাটার কাঁচি ও অস্ত্র হাতে নিয়ে আসা শরণার্থীদের সঙ্গে রীতিমতো সংঘর্ষ হয় সীমান্তরক্ষীদের। কাঁদানে গ্যাসের শেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করা হয়। পোল্যান্ড জানিয়েছে, বেশ কয়েক জায়গায় সীমান্ত বেড়ার ক্ষতি হয়েছে।

কয়েকটি ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে পোল্যান্ড দাবি করেছে, বেলারুশ ইচ্ছাকৃতভাবে এ কাজ করছে। শরণার্থীদের তারা ইউরোপে ঢোকানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। এবং সে কারণে তাদেরই পরিকল্পনায় পোল্যান্ডের এই শরণার্থী রুট তৈরি হয়েছে।

ভিডিও’তে দেখা যাচ্ছে, কীভাবে শরণার্থীদের বেলারুশের পুলিশ নেতৃত্ব দিয়ে সীমান্ত পর্যন্ত পৌঁছে দিচ্ছে। এরপর সীমান্ত পেরোনোর পরামর্শ দিচ্ছে। সংঘর্ষের পর অবশ্য সীমান্তেই ক্যাম্প তৈরি করে আছেন শরণার্থীরা।

এই শরণার্থীরা মূলত ইরাক থেকে এসেছেন। কুর্দ সম্প্রদায়ের এই মানুষেরা ইরাক থেকে বেলারুশ হয়ে পোল্যান্ডে ঢোকার চেষ্টা করছেন। এর আগে এই রুট দিয়ে শরণার্থীরা যাতায়াত করতেন না বলে পোল্যান্ডের দাবি।

পোল্যান্ডের অভিযোগ, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওপর চাপ সৃষ্টি করার জন্যই এই রাস্তা তৈরি করেছে বেলারুশ। শরণার্থীদের ঢুকিয়ে তারা পোল্যান্ড-সহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের একাধিক দেশে বিশৃঙ্খলা তৈরির চেষ্টা করছে।

কিছুদিন ধরেই পোল্যান্ডের অভিযোগ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন বেলারুশের রাষ্ট্রপ্রধান লুকাশেঙ্কোর ওপর চাপ সৃষ্টি করছে। বেলারুশের ওপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। তারই বদলা নেওয়ার চেষ্টা করছে বেলারুশ। শরণার্থী ঢুকিয়ে তারা পাল্টা ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওপর চাপ তৈরি করছে।

শুধু পোল্যান্ড নয়, ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান উরসুলা ফন ডেয়ার লাইয়েনসহ একাধিক দেশ একই অভিযোগ করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com