সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
খালেদা জিয়া মুক্ত আছেন বলেই মুক্তভাবে চিকিৎসা নিতে পারছেন : আইনমন্ত্রী নতুন প্রজন্মের জন্য “চিরঞ্জীব মুজিব” এর মতো আরো চলচ্চিত্র নির্মাণের আহ্বান রাষ্ট্রপতির উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণের বিষয়ে জাতিসংঘে প্রস্তাব গ্রহণ মহান অর্জন : প্রধানমন্ত্রী ব্লু-ইকোনমির সুযোগ কাজে লাগাতে বিনিয়োগ করার জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহ্বান জাপান সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে : জাপানের ভাইস-মিনিস্টার বিআরটিসির সব বাসেই শিক্ষার্থীরা অর্ধেক ভাড়া সুবিধা পাবে ‘ওমিক্রন’ প্রতিরোধে জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির ৪ সুপারিশ ওমিক্রনে দক্ষিণ আফ্রিকায় মৃত্যুহার দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে আর কোনো বিপদ ছাড়াই দিন শেষ করল বাংলাদেশ ‘ওমিক্রন’ নিয়ে দেশের সব প্রবেশপথে সতর্কবার্তা

কুষ্টিয়ায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ-গুলি, আহত ৬

কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের কল্যানপুর বাজারে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বিএনপি নেতা স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে দুজন গুলিবিদ্ধসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানা গেছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনার পর আওয়ামী লীগ ও বিএনপি একে অপরকে দোষারোপ করছে। এদিকে এ ঘটনার পরে বুধবার রাতে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিনকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী সেলিম চৌধুরী জানান, আমার নির্বাচনী প্রচারণা অফিসে নেতাকর্মীরা সন্ধ্যার সময় মানুষের সাথে নির্বাচনী বিষয় নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এমন সময় বিএনপির নেতাকর্মীরা আমার অফিসে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। আমার নেতাকর্মীরা বাধা দিলে হামলাকারীরা গুলি চালায় এবং আমার কর্মী-সমর্থকদের মোটরসাইকেলে আগুন লাগিয়ে দেয়।

এদিকে, বিএনপি নেতা স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বিল্লাল হোসেন জানান, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকজন বাজারে এসে লাভলু মাস্টারের ভাতিজা তাদের কর্মী মাসুদকে তুলে নিয়ে যেতে চান। তারা লাভলু মাস্টার ও মাসুদের বাড়ি ভাঙচুর করেন এবং সেখানে তারা নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি করে মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেন। এরপর উল্টো তারা আমাদের ওপর দোষ চাপিয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে দৌলতপুর থানার ওসি (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান, আমরা একটি গোলযোগের খবর শুনেছি। সেখানে দুই পক্ষই একে অপরকে দোষারোপ করছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইন অনুযায়ী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অপরদিকে, বুধবার রাতে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিনকে প্রত্যাহার করে সেখানে ইন্সপেক্টর জাবেদ হাসানকে নতুন ওসির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আগামী ২৮ নভেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com