বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২৯ অপরাহ্ন

জুভেন্টাসকে হারিয়ে ইতালীয় সুপার কাপ জয় করল ইন্টার মিলান

অ্যালেক্সিস সানচেজের শেষ মুহুর্তের গোলে জুভেন্টাসকে হারিয়ে ইতালীয় সুপার কাপের শিরোপা  জয় করেছে ইন্টার মিলান। খেলা শেষে চিলিয়ান স্ট্রাইকার বলেন, আমার নিজেকে ‘খাঁচাবন্দী সিংহ’ মনে হচ্ছে। অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো হাইভোল্টেজ ওই ম্যাচে নাটকীয়ভাবে জুভেন্টাসকে ২-১ গোলে পরাজিত করে ইন্টার।
সানসিরোতে অনুষ্ঠিত ম্যাচের ১২১তম মিনিটে পোস্টের খুব কাছে থেকে জয়সুচক গোল করেন সানচেজ। এতে মৌসুমের প্রথম শিরোপা ঘরে তুলতে সক্ষম হয় সিমোন ইনজাগির দল। গত গ্রীষ্মে এন্টনিও কন্টের পরিবর্তিত হিসেবে ক্লাবটির দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি।
ওয়েস্টন ম্যাকেনির গোলে লিড পাওয়া জুভেন্টাসকে প্রথমার্ধেই পেনাল্টি থেকে গোল করে সমতায় ফিরিয়ে আনেন লটারো মার্টিনেজ। পরে মৌসুমের মাত্র চারটি ম্যাচে মুল একাদশের হয়ে খেলা সানচেজ জয়সুচক গোল করে সতীর্থদের সঙ্গে বুনো উন্মাদনায় যোগ দেন।
খেলা শেষে চিলির ওই ফরোয়ার্ড বলেন,‘ সেরা খেলোয়াড়রা এমনটিই পছন্দ করে। আমরা যত বেশী খেলব, ততই স্বস্তিবোধ করব। নিজেকে আমার খাচাবন্দী সিংহের মত লাগছে। তারা যদি আমাকে আরো বেশী খেলার সুযোগ দিতো তাহলে সেরা হতে পারতাম।’
এই জয়টি ইন্টারের ধারবাহিক সফলতাকে আরো একধাপ এগিয়ে দিয়েছে। সিরি এ লিগের শেষ আট ম্যাচের সবকটিতেও জয়লাভ করেছে তারা। যার কারণে নগর প্রতিপক্ষ এসি মিলানের চেয়ে এক পয়েন্টে এগিয়ে থেকে তালিকার শীর্ষস্থানটিও দখলে রেখেছে ইন্টার।
অপরদিকে জুভেন্টাসের জন্য এটি ছিল এই মৌসুমে আরেকটি হতাশার রাত। শুরুতে চ্ছন্নছাড়া ক্লাবটিকে সম্প্রতি সঠিক পথেই ফিরছিল বলে মনে হচ্ছিল।
ম্যাচের ২৫ মিনিটে ম্যাকেনি গোল করে এগিয়ে দেন জুভেন্টাসকে। আলভারো মোরাতা বক্সের মধ্যে বল নিয়ন্ত্রনে নিয়ে ক্রস করলে সেটি ডিফ্ল্যাক্টেড হয়ে পৌঁছে যায় আমেরিকান সতির্থের কাছে। তবে ১০ মিনিট পর মার্টিনেজের গোলে সমতায় ফিরে আসে ইন্টার। পেনাল্টি থেকে লক্ষ্যভেদ করেছেন তিনি।
বিরতির পর জয়ের জন্য বেশ আটঘাট বেঁধেই মাঠে নেমেছিল জুভেন্টাস। কিন্তু মাত্র দুটি জোড়ালো আক্রমন রচনা করতে সক্ষম হয়েছে তারা। যার মুল কারিগর ছিলেন ফেদেরিকো বার্নার্ডেচি। তবে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। ফলে ফাইনাল গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। এই সময়েও কোন পক্ষ গোল করতে না পারায় টাইব্রেকারে অংশগ্রহনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল দল দুটি। এরই অংশ হিসেবে জুভেন্টাস মাঠে পাঠান লিওনার্দো বনুচ্চিকে। যাতে দক্ষতার সঙ্গে স্পট কিক নিতে পারেন তিনি। কিন্তু এর আগেই গোল হজম করতে হয় জুভেন্টাসকে।  মাত্তেও ডার্মিয়ানের বাড়িয়ে দেয় বল বেশ দক্ষতার সঙ্গে জালে জড়িয়ে দেন সানচেজ। ফলে জয় নিশ্চিত হয় ইন্টার মিলানের।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com