ঝড়ো আবহাওয়ায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি

ঝড়ো আবহাওয়ায় করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি বেশি

0

তথ্য ও প্রযুক্তি ডেস্ক, নগরকন্ঠ.কম : করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে ছয় ফুট দূরত্বের নিয়ম ঝড়ো আবহাওয়ায় যথেষ্ট নাও হতে পারে বলে নতুন একটি গবেষণায় সতর্ক করা হয়েছে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, বাতাস জোরে বইলে ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি বেশি থাকে। করোনাভাইরাসের বায়ুবাহিত সংক্রমণ সম্পর্কে এখনও অনেক কিছু অজানা। তবে গবেষকরা সতর্ক করেছেন যে, সামান্য বাতাসে হাঁচি-কাশির কণার উপস্থিতি থাকলেও তা আরো বেশি ছড়িয়ে পড়ে।

ফিজিক্স অব ফ্লুয়িড জার্নালে প্রকাশিত এ গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতি ঘন্টায় বাতাসের মাত্র চার কিলোমিটার গতির সাথে হাঁচি-কাশির কণাগুলো পাঁচ সেকেন্ডে ১৮ ফুট দূরত্ব পর্যন্ত যেতে পারে।

গবেষণাপত্রটির লেখক সাইপ্রাসের নিকোসিয়া ইউনিভার্সিটির গ্লোবাল পার্টনারশিপের ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ডিমিট্রিস ড্রিকাকিস বলেছেন, ‘বায়ুবাহিত এই তরলগুলো প্রাপ্তবয়স্ক এবং শিশু- উভয়কেই প্রভাবিত করবে। কম বয়সি মানুষজন এবং শিশুরা উচ্চ ঝুঁকিতে পড়তে পারে, যদি দূষিত এই বাতাসের গতিপথের মধ্যে থাকে।’

লালা হচ্ছে জটিল একটি তরল এবং কাশি থেকে নির্গত এই তরল বাতাসে স্তুপ আকারে ভেসে বেড়ায়।

কাশি থেকে বের হওয়া তরলগুলো বাতাসে ভেসে বেড়ানো অনেকগুলো বিষয়ের ওপর নির্ভর করে। যেমন তরলগুলোর সাইজ এবং পরিমাণ, ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে কীভাবে একে অপরের সাথে ও পার্শ্ববর্তী বাতাসের সাথে যোগাযোগ করে, বাষ্পে পরিণত হয়। এছাড়া চারপাশের বাতাসের আর্দ্রতা এবং তাপমাত্রার বিষয়টিও নির্ভর করে।

লালা কীভাবে বাতাসের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয় তা বুঝতে গবেষকরা এমন একটি সিমুলেশন তৈরি করেছিলেন, যেখানে কাশি দেয়া ব্যক্তির সামনের বাতাসের মধ্য দিয়ে চলমান প্রতিটি লালা ফোঁটাগুলোর অবস্থা পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। এই মডেলের মাধ্যমে বাতাসের আর্দ্রতা, ছড়িয়ে পড়ার শক্তি, লালা এবং বাতাসের অণুগুলোর মিথস্ক্রিয়া এবং কীভাবে ফোটাগুলো তরল থেকে বাষ্পে পরিবর্তিত হয় তা বিশ্লেষণ করা হয়েছে।

প্রফেসর ড্রিকাকিসের মতে, ‘এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি গবেষণা। যা স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা দূরত্বের নির্দেশনা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করছে। বায়ুবাহিত রোগের সংক্রমণ এবং ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টি প্রকাশ করছে। যা বৈজ্ঞানিক ফলাফলের ভিত্তিতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গঠনে সহায়তা করবে।’

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন