বগুড়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা

বগুড়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : বগুড়ায় সোমবার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা ছয়টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছেন।

বগুড়ায় সোমবার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা নিষিদ্ধ পলিব্যাগ মজুদ, সড়ক পরিবহন আইন অমান্য, মেয়াদোত্তীর্ণ তারিখ ছাড়া দই বিক্রি ও লাইসেন্স ছাড়া সিমেন্টের ব্যবসা করায় ছয়টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছেন। এ সংক্রান্ত আটটি মামলায় এক লাখ ২২ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের জুডিশিয়াল মুন্সিখানা শাখা সূত্রে জানা যায়, পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর নিষিদ্ধ পলিব্যাগ উৎপাদন, বাজারজাতকরণ ও বিক্রির অপরাধে শহরের বড়গোলা, টিনপট্টির নূর ইসলামকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাছিম রেজার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ ধারা ৬(ক) এবং ১৫ এর উপধারা ৪(ক) ও ৪(খ) অনুযায়ী এ জরিমানা করেন। এ সময় আদালত ১০ লাখ টাকা মূল্যের ১০ টন পলিথিন জব্দ করে পরিবেশ অধিদফতরের জিম্মায় দিয়েছেন।

সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ এর ৬৬ ও ৯২ ধারা অনুযায়ী লাইসেন্স ও হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল চালানোর অপরাধে তিনটি মামলায় দেড় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাজহারুল ইসলাম চৌধুরীর ভ্রাম্যমাণ আদালত এ জরিমানা করেন।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ এর ৩৭ ধারা অনুযায়ী উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ ছাড়া দই বিক্রি করায় শহরতলির চারমাথায় লাবানুল ও আকবরিয়াসহ চারটি দইঘরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোমানা রিয়াজ ও পাপিয়া সুলতানার আদালত এ জরিমানা করেছেন। এছাড়া অত্যাবশ্যকীয় পণ্য নিয়ন্ত্রণ আইন-১৯৫৬ অনুযায়ী লাইসেন্স ছাড়া সিমেন্ট ব্যবসা করার অপরাধে দুটি মামলায় দু’জন ব্যবসায়ীকে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তাসনিমুজ্জামানের ভ্রাম্যমাণ আদালত এ জরিমানা করেন।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন