শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
করোনায় কাজ হারিয়েছেন ৬২ শতাংশ মানুষ আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড মোকাবেলায় গ্লোবাল কল টু এ্যাকশন গ্রহণে নেতৃত্ব দিল বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড মোকাবেলায় গ্লোবাল কল টু এ্যাকশন গ্রহণে নেতৃত্ব দিল বাংলাদেশ ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথম সর্বোচ্চ নেতা আলী খামেনি ভোট দিয়েছেন শ্লোগান নয়, আন্দোলনের মাধ্যমে মুক্ত করতে হবে খালেদা জিয়াকে: গয়েশ্বর খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে স্ট্যান্টবাজিই বিএনপির বর্তমান উদ্দেশ্য: হানিফ শুরু হচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগ পর্ব ফের গাজায় বিমান হামলা চালাল ইসরায়েল বেতন বাড়ছে ক্রিকেটারদের সখীপুরে উপবৃত্তিবঞ্চিত কয়েক হাজার শিক্ষার্থী

মুশফিকের আক্ষেপ, ২৫৭ বাংলাদেশ

আজ রোববার দুপুরে মিরপুর শেরে বাংলায় টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই এক বাউন্ডারিতে শুভ সূচনা করেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তবে দ্বিতীয় ওভারেই স্ট্রাইক পেয়ে আউট হন লিটন। দুশমন্থা চামিরার গতিময় বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে দিয়ে শূন্য হাতেই ফেরেন এই ওপেনার।

ফলে মাত্র ৫ রানেই প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ এবং ক্রিজে তামিমের সঙ্গে যোগ দেন সাকিব আল হাসান। প্রথম দুটি বল ডট দিলেও তৃতীয় বলেই বাউন্ডারি মেরে রানের খাতা খোলেন দুই সিরিজ পর দেশের হয়ে খেলতে নামা সাকিব। তবে টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ।

দুই বাউন্ডারি মেরে তামিমের সঙ্গে ৩৮ রানের জুটি গড়ে বিচ্ছিন্ন হন সাকিব। গুনাথিলাকার বলে নিসাঙ্কার তালুবন্দী হয়ে ফেরার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ১৫ রান। যাতে ফিফটি পাওয়ার আগেই (৪৩ রানে) দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপরেই দারুণ খেলতে থাকা তামিমের সঙ্গী হন মুশফিকুর রহিম।

এ দুজনে মিলে তৃতীয় উইকেট যোগ করেন ৫৬টি মূল্যবান রান। এরপরেই ধনাঞ্জয়ার স্পিনে পরাস্ত হয়ে তামিম ফিরে যান ৫১তম অর্ধশতক হাঁকিইয়েই। ফেরার আগে ৭০ বল থেকে ছয়টি চার ও একটি ছক্কায় ৫২ রান করেন অধিনায়ক। পরের বলেই ক্রিজে আসা মোহাম্মদ মিঠুনকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে জোড়া শিকার করেন ধনাঞ্জয়া। যাতে ২৩তম ওভারেই দলীয় শতরানের আগেই চতুর্থ উইকেট খোয়ায় স্বাগতিকরা। সেইসঙ্গে খোয়ায় নিজেদের দুটি রিভিউও।

এই অবস্থায় ২৪তম ওভারে গিয়ে দলীয় রান একশ স্পর্শ করে বাংলাদেশ। পঞ্চম উইকেটে বড় ভায়রা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে সঙ্গী করে দলের সংগ্রহকে বাড়াতে থাকেন মুশফিক। সেইসঙ্গে নিজের ৪০তম ফিফটিও তুলে নেন এই রান মেশিন।

শতকের লক্ষ্যে ছুটতে থাকা মি. ডিপেন্ডেবল শেষ পর্যন্ত আউট হয়ে ফেরেন ১৬ রানের আক্ষেপ নিয়েই। তার ৮৭ বলের দুর্দান্ত ইনিংসে ছিল চারটি চার ও একটি ছয়ের মার। পরে তামিমের মতোই ফিফটি তুলে নিয়ে বিগ হিট করতে গিয়ে বোল্ড হয়ে ফেরেন রিয়াদও। ফেরার আগে তার ব্যাট থেকে আসে ৭৬ বলে ৫৪ রান।

শেষ দিকে আফিফ হোসাইন আফিফের ঝড়ে আড়াইশ পার হয় বাংলাদেশের স্কোর। ২২ বলে তিন চারের মারে ২৭ রন করে অপরাজিত থাকেন আফিফ। সঙ্গী সাইফুদ্দিন অপরাজিত থাকেন ৯ বলে ১৩ রান করে। যাতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে স্বাগতিকদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ২৫৭ রান।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে এদিন সফল বোলার ছিলেন স্পিনার ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। ৪৫ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট নেন এই পার্টটাইমার। এছাড়া দুশমন্থা চামিরা, দানুসকা গুনাথিলাকা ও লাকশান সান্দাকান একটি করে উইকেট লাভ করেন।

আজকের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে বাংলাদেশ দলে সুযোগ হয়নি সৌম্য সরকার, মেহেদী হাসান, মোসাদ্দেক হোসাইন ও শরিফুল ইসলামের। অন্যদিকে, আজ করোনা নেগেটিভ হওয়ায় একাদশে সুযোগ পেয়েছেন লঙ্কান অলরাউন্ডার ইসুরু উদানা।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com