বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫১ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
ফিরে গেল পেন্সিলে আঁকা পরী পদত্যাগে বাধ্য করা ব্যাংকারদের চাকরিতে ফেরাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন বিশ্বকাপে দুজনের নতুন শুরু একদিনে আরও ২৩৪ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে করোনায় আরও ৫১ মৃত্যু, শনাক্ত হার ৫.৯৮ শতাংশ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট এখনো ফোন না দেওয়ায় ইমরান খানের ক্ষোভ অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে হতে পারে বিসিবির নির্বাচন যুব সমাজকে ভবিষ্যতের উপযোগী করে গড়ে তুলতে প্রযুক্তিগত দক্ষতা অর্জনের বিকল্প নেই : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জিয়া কারাগারে কত মানুষ হত্যা করেছে তা খুঁজে বের করুন: সংসদ সদস্যদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী বিএনপি অসত্য বক্তব্য উপস্থাপনকে রেওয়াজে পরিণত করেছে : ওবায়দুল কাদের

৫০-এ ‘কনসার্ট ফর বাংলাদেশ’

বাংলার মানুষের ওপর পাকিস্তানিদের নৃশংসতা আর মানবতার বিপর্যয় দেখে অন্য অনেকের মতো প্রাণ ডুকরে কেঁদে উঠেছিল ভারতীয় উপমহাদেশের কিংবদন্তি সেতারবাদক পণ্ডিত রবিশঙ্করের, যাঁর পূর্বপুরুষের ভিটা নড়াইলের কালিয়ায়। তিনি ডাকলেন প্রিয় শিষ্য বিটলস ব্যান্ডের অন্যতম গায়ক জর্জ হ্যারিসনকে। ১৯৬৫ সালে রবিশঙ্করের কাছে সেতারের তালিম নিয়েছিলেন জর্জ হ্যারিসন। কিন্তু তিন-চার বছর পরই বুঝে গিয়েছিলেন, তাঁর পক্ষে ভালো সেতারবাদক হওয়া সম্ভব নয়। তাই সেতার ছাড়লেন। কিন্তু ‘গুরুদক্ষিণা’ বাকি থেকে গিয়েছিল। একাত্তরে জর্জ হ্যারিসনের কাছে যেন সেই গুরুদক্ষিণা চাইলেন রবিশঙ্কর। বললেন, বাংলাদেশে যুদ্ধে আক্রান্ত অসহায়দের জন্য কিছু করতেই হবে। দুজনে ঠিক করলেন, বাংলাদেশের পক্ষে বিশ্বজনমত গড়তে এবং অসহায় মানুষের সহায়তায় তহবিল সংগ্রহের জন্য আয়োজন করা হবে একটি কনসার্ট।

এর পর থেকেই জর্জ হ্যারিসন যোগাযোগ করেন খ্যাতিমান শিল্পী বব ডিলান, এরিক ক্ল্যাপটন, বিলি প্রিস্টন, রিঙ্গো স্টার, লিওন রাসেলসহ অন্যদের সঙ্গে, যাঁরা সেই কনসার্টে সংগীত পরিবেশন করেছিলেন। কনসার্টে রবিশঙ্করের সঙ্গে ভারতীয় উপমহাদেশের আরো তিন কিংবদন্তি শিল্পী অংশ নেন। তাঁরা হলেন ওস্তাদ আলী আকবর খান, ওস্তাদ আল্লা রাখা ও কমলা চক্রবর্তী।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com