বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন

পরীমনির রিমান্ড: নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন দুই বিচারক

মাদক মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমনির দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফায় রিমান্ড মঞ্জুর করায় হাইকোর্টে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন বিচারিক আদালতের দুই বিচারক। এসময় ভবিষ্যতে রিমান্ড মঞ্জুরের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকবেন বলেও অঙ্গীকার করেছেন ওই দুই মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট।

রোববার এ বিষয়ে শুনানি শেষ হয়েছে। যার রায় ঘোষণার তারিখ রেখেছেন আগামী ২৫ নভেম্বর। দুপুরে বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি এ এসএম আব্দুল মোবিনের বেঞ্চ শুনানিতে নিঃশর্ত ক্ষমা চান ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস ও আতিকুল ইসলাম।

দুই বিচারকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবদুল আলীম মিয়া জুয়েল, আইন ও সালিস কেন্দ্রের পক্ষে জেড আই খান পান্না, পরীমনির পক্ষে মজিবুর রহমান ও রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন এ এম আমিন উদ্দিন ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মিজানুর রহমান।

এর আগে গত ১৫ সেপ্টেম্বর দুই বিচারক ক্ষমা না চেয়ে ব্যাখ্যা দিলে তাতে অসন্তোষ প্রকাশ করে হাইকোর্ট। আবারো তাদের ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়।পরে ২৪ অক্টোবর আরো এক সপ্তাহ সময় নেন দুই বিচারক।

গত ৪ আগস্ট পরীমনির বনানীর বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। পরে তাঁকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এ মামলায় পরীমনিকে প্রথমে চার দিন, দ্বিতীয় দফায় দুই দিন, তৃতীয় দফায় এক দিনসহ মোট সাত দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

মামলায় জামিন আবেদনের শুনানির দিন দেরিতে নির্ধারণ করা নিয়ে জজ আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন পরীমনি। এ বিষয়ে হাইকোর্টের আদেশে গত ৩১ আগস্ট পরীমনিকে জামিন দেন বিচারিক আদালত। পরদিন মুক্তি পান পরীমনি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com