করোনা প্রতিরোধে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান

করোনা প্রতিরোধে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, নগরকন্ঠ.কম : বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন ৩৭ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ ও ১ হাজার দরিদ্র মানুষকে খাবার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

রোববার (২৯ মার্চ) বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি হাফিজ আদনান রিয়াদ এবং সাধারণ সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম যৌথ বিবৃতিতে এ আহ্বান জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে যুব ইউনিয়নের নেতারা বলেন, দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ যেকোনো সময় মহামারির রূপ নেওয়ার আশঙ্কা আছে। কিন্তু আমাদের দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ শ্রমজীবী মানুষ এখনো এর ভয়াবহতা সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতন নয়। সরকার প্রথম থেকে দেশের প্রবেশ পথগুলোতে কড়াকড়ি আরোপ করেনি। ফলে বিদেশফেরত মানুষরা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছেন। এরপর সাধারণ ছুটি দিয়ে একসাথে কোটি মানুষকে বাড়িতে যাওয়ার সুযোগ দিয়েছে।

তারা বলেন, প্রথম থেকে সরকারি বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সবার মাস্ক পরার দরকার নেই। শুধু আক্রান্তরা মাস্ক পরলেই হবে। এখন রাস্তায় মাস্ক ছাড়া বের হলে কান ধরিয়ে লাঠিপেটা করা হচ্ছে। এতদিন পর সরকার পিপিই তৈরি শুরু করছে। কিন্তু বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরাপত্তা ঝুঁকিতে কাজ করতে পারছেন না। বাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্কসহ প্রতিরোধ উপকরণের স্বল্পতার ফলে অসাধু ব্যবসায়ীরা বেশি দামে তা বিক্রি করছে।

বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, ছাত্র ইউনিয়ন, উদীচীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠন স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, জীবাণুনাশক, পিপিই তৈরি ও বিতরণ করছে। পাশাপাশি দরিদ্রদের খাদ্য সহায়তাও দিচ্ছে সংগঠনগুলো।

বিবৃতিতে যুব নেতৃবৃন্দ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আসন্ন তীব্রতর সংকটকে যথাযথ গুরুত্ব দিয়ে জরুরি জাতীয় কর্তব্য হিসেবে সব প্রচেষ্টাকে সমন্বয় করার উদ্যোগ নিন। অনলাইনে স্বেচ্ছাসেবক আহ্বান ও নিবন্ধনের মাধ্যমে তাদের তালিকা করে দ্রুততম সময়ে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করুন। পরিস্থিতিকে আড়াল না করে প্রকৃত সত্যের ভিত্তিতে বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে, অন্যথায় বাংলাদেশ ভয়াবহ মানবিক দুর্যোগ প্রত্যক্ষ করবে।

নগরকন্ঠ.কম/এআর

কোন কমেন্ট নেই

উত্তর দিন