বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৩০ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
জুনে এসএসসি, আগস্টে এইচএসসি নিতে চায় বোর্ড দেশে বুস্টার ডোজ পেয়েছেন প্রায় সাড়ে সাত লাখ অনশন ও আন্দোলন ভিন্ন ব্যাপার: জাফর ইকবাল বাংলাদেশ যখন উন্নত দেশ হওয়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, ঠিক তখনই আবার ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে : সরকারি দল বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যা মামলা : মৃত্যুদন্ডাদেশপ্রাপ্ত ১৭ আসামির জেল আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বললেন পেরেরা ফ্রান্সে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের নতুন রেকর্ড নেদারল্যান্ডসকে হোয়াইটওয়াশ করলো আফগানিস্তান টিকা আবিষ্কার ও ব্যবহারের অনুমতির আগেই সরকার টিকা সংগ্রহের উদ্যোগ নেয় : প্রধানমন্ত্রী রাজনীতি ও নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সুনির্দিষ্ট কোনো রূপরেখা নেই : ওবায়দুল কাদের

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ও সংবিধানে বিসমিল্লাহ থাকবে

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল বা সংবিধান থেকে বিসমিল্লাহ তুলে দেয়ার কোনো পরিকল্পনা নেই আওয়ামী লীগের। এ নিয়ে সংসদে কোনো বিল তুলবে না ক্ষমতাসীনরা। দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা জানান, সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে সব ধর্মের অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। এ নিয়ে অহেতুক বিতর্ক সৃষ্টির সুযোগ নেই।

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম নিয়ে সম্প্রতি তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যের পর সমালোচনা ওঠে সারা দেশে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন, ২০১১ সালে পঞ্চদশ সংশোধনীর আগে সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরীর নেতৃত্বে ১৫ সদস্যের কমিটি সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে কথা বলে। ২৭টি বৈঠক শেষে ২০১১ সালের ৮ই জুন কমিটি সংসদে প্রতিবেদন পেশ করে।

এর ভিত্তিতে সংবিধানের পঞ্চম ও অষ্টম সংশোধনীতে সন্নিবেশিত বিসমিল্লাহির রাহমানীর রাহিম ও রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বহাল রাখে সংসদ। আওয়ামী লীগ নেতাদের মতে, পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে সংবিধানে ধর্মনিরপেক্ষতা ও ধর্মীয় স্বাধীনতা পুনর্বহাল করা হয়েছে।

নেতাদের মতে, রাষ্ট্রধর্ম নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের মন্ত্রীদের বক্তব্য একান্তই তাদের ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে দলের কোনো সম্পর্ক নেই। কেননা এটি মিমাংসিত বিষয়।

আওয়ামী লীগ নেতাদের মত, ভোটের রাজনীতিতে ধর্মকে ব্যবহার করতে ইসলাম ধর্মকে সংবিধানে সন্নিবেশিত করা হলেও সংখ্যাগরিষ্ঠের অনুভূতির কারণে আওয়ামী লীগ তাতে সায় দিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com