সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৫৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনামঃ
খালেদা জিয়া মুক্ত আছেন বলেই মুক্তভাবে চিকিৎসা নিতে পারছেন : আইনমন্ত্রী নতুন প্রজন্মের জন্য “চিরঞ্জীব মুজিব” এর মতো আরো চলচ্চিত্র নির্মাণের আহ্বান রাষ্ট্রপতির উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণের বিষয়ে জাতিসংঘে প্রস্তাব গ্রহণ মহান অর্জন : প্রধানমন্ত্রী ব্লু-ইকোনমির সুযোগ কাজে লাগাতে বিনিয়োগ করার জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আহ্বান জাপান সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে : জাপানের ভাইস-মিনিস্টার বিআরটিসির সব বাসেই শিক্ষার্থীরা অর্ধেক ভাড়া সুবিধা পাবে ‘ওমিক্রন’ প্রতিরোধে জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটির ৪ সুপারিশ ওমিক্রনে দক্ষিণ আফ্রিকায় মৃত্যুহার দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে আর কোনো বিপদ ছাড়াই দিন শেষ করল বাংলাদেশ ‘ওমিক্রন’ নিয়ে দেশের সব প্রবেশপথে সতর্কবার্তা

মানুষের কথা অনুধাবন করেই ক্যান্সার, কিডনী, লিভার চিকিৎসার হাসপাতাল নির্মাণ হচ্ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, দেশের মানুষের কথা অনুধাবন করেই আট বিভাগে ১৫তলা বিশিষ্ট ক্যান্সার, কিডনী, লিভার চিকিৎসার হাসপাতাল নির্মাণ করা হচ্ছে।
আজ রোববার সকালে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট কর্তৃক আয়োজিত ‘নিজ পকেট থেকে গৃহস্থালী ব্যয় সংকোচনের কৌশল’ শীর্ষক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
জাহিদ মালেক বলেন, এসব রোগে প্রতি বছর দেশে সর্বাধিক মৃত্যু ঘটে, এছাড়া অনেক পরিবার প্রায় নিঃস্ব হয়ে যায়। এই ব্যাপারটির গুরুত্ব অনুধাবন করেই দেশের আট বিভাগেই আটটি উন্নত মানের ১৫ তলা বিশিষ্ট ক্যান্সার, কিডনী, লিভার চিকিৎসার হাসপাতাল নির্মাণ করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, ক্যান্সার, কিডনী, হার্ট, ডায়াবেটিসের মত অসংক্রামক রোগের (এনসিডিসি) কারনেই বর্তমানে দেশের মানুষের আউট অব পকেট এক্সপেনডিচার বেশি বৃদ্ধি পাচ্ছে।
হাসপাতাল নির্মাণ কাজ একেবারেই শেষ পর্যায়ে আছে জনিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, এসব হাসপাতালে হাজারো রোগী বিনা খরচে এরকম নন-কমিউনিকেবল রোগের চিকিৎসা লাভ করবে। এতে করে দেশের মানুষের আউট অব পকেট এক্সপেনডিচার অনেকাংশেই কমে যাবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, রাশিয়াসহ বিশে^র বহু দেশেই মৃত্যুহার এখনো ঊর্দ্ধমুখী। অনেক দেশ লকডাউনে যাচ্ছে। সে সময় বাংলাদেশ করোনায় মৃত্যু শুন্য হলো। এটি স্বাস্থ্যখাতের সফল পরিকল্পনা, পরিশ্রম এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগের ফসল। তবে, আমাদেরকে কোনভাবেই আত্মতুষ্টিতে ভোগা যাবে না। কারণ, এটি যাতে আবারো বড় কোন আঘাত হানতে না পারে সেজন্য কাজ করতে হবে।
সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া। সভায় মূল প্রবন্ধ তুলে ধরেন স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটের মহাপরিচালক ডাঃ মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন, অতিরিক্ত সচিব, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ।
সভায় আগত স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা এসময় দেশের মানুষের আউট অব পকেট এক্সপেনডিচার বৃদ্ধির কারণগুলি তুলে ধরেন ও সাধারণ মানুষের চিকিৎসা ব্যয় কমানোর কৌশল নির্ধারণী তথ্য উপাত্ত তুলে ধরেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 Nagarkantha.com